নড়াইলে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় পিটিয়ে পা ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ

নড়াইলে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় আনোয়ার মোল্লার (৫৮) পিটিয়ে পা ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ পরাজিত চেয়ারম্যান উজ্জ্বলের বিরুদ্ধে। আনোয়ার মোল্লা গোবরা গ্রামের মৃত তোরাপ মোল্যার ছেলে।

আজ বেলা তিনটার সময় সদরের সিংগাশোলপুর ইউনিয়নের গোবরা বাজারে এ ঘটনা ঘটে। আহত আনোয়ার মোল্লা জানান, আমি নির্বাচনে নৌকা প্রতিকের প্রার্থী সাইফুল ইসলাম হিটুর পক্ষে কাজ করেছিলাম। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে পরাজিত প্রার্থী চেয়ারম্যান মোঃ উজ্জ্বল শেখ আমার কাছে টাকা চাদা দাবী করে বলে পাচঁ লক্ষ টাকা দিবি না হলে আমি ইন্ডিয়া যাওয়ার আগে তোর ব্যবস্থা করে যাব। আমি টাকা না দেওয়ায় আজ আমাকে মেরে টাকা নিয়ে গেছে।

তিনি আরো বলেন, গোবরা বাজারে আমি দীর্ঘদিন ধরে ধান-পাটের ব্যবসা করি। আজ আমাদের হাটের দিন ছিল। ধান বিক্রি করে প্রায় ৪ লক্ষ টাকা নিয়ে দোকানে ঢুকে ড্রয়ারে টাকা ঢোকাবো এমন সময় হঠাৎ করে চেয়ারম্যান উজ্জ্বলের নির্দেশে গোবরা গ্রামের নিউটন (৩৫), আজিজুর (৩৮), রিপন (৩০), রাজ্জাক(৪৫) ও নলদিরচরের রবিউল (৩৫) সহ ১০/১২ জন আমাকে বেধড়ক পিটানো শুরু করে এত আমার পা ভেঙে যায় এবং সব টাকা নিয়ে যায়।

আহত আনোয়ার মোল্লাকে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করলে অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য যশোর পঙ্গু হাসপাতালে রিফার্ড করা হয়। এ বিষয়ে কর্তব্যরত ডাক্তার শরীফ মোহাম্মদ হাসান বলেন, এক্সেরে করে দেখা গেছে পা ভেঙে গেছে এবং অতিরিক্ত আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। তাই তাকে রিফার্ড করা হয়েছে।

আহত আনোয়ার মোল্লাকে দেখতে এসে জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও পৌরসভার মেয়র আঞ্জুমান আরা বলেন, আনোয়ার আমাকে আগেই জানিয়েছিল পরাজিত চেয়ারম্যান উজ্জ্বল তাকে মারার জন্য হুমকি দিচ্ছে এবং টাকা দাবি করেছিল। এ বিষয়ে জানতে চাইলে মোঃ উজ্জ্বল শেখের মোবাইল নম্বর (০১৭১৩২৭০৬৭০) বন্ধ পাওয়া যায়।

এ বিষয়ে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ শওকত কবির বলেন, আমরা ফোনে খবর পেয়েছি পুলিশ পাঠিয়েছি। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

ডেইলিরূপান্তর/আরএ/এইচ.

  • 218
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ