টেকনাফে ডিএনসি ও র‍্যাবের যৌথ অভিযানে ১৩ হাজার পিস ইয়াবাসহ আটক- ১

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর (ডিএনসি) টেকনাফ বিশেষ জোন ও র‍্যাব-১৫ এর যৌথ অভিযানে ১৩ হাজার ইয়াবাসহ এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়েছে। ২১ নভেম্বর শনিবার দিনগত রাত দেড়টা থেকে ২টা পর্যন্ত এ অভিযান চালানো হয়। অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করেন ডিএনসি টেকনাফ বিশেষ জোনের সহকারী পরিচালক সিরাজুল মোস্তফা।

জানা গেছে, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর টেকনাফ বিশেষ জোনের সহকারী পরিচালক সিরাজুল মোস্তফার সংগৃহীত তথ্যের ভিত্তিতে এবং সার্বিক তত্ত্বাবধানে গত ২১ নভেম্বর শনিবার দিনগত রাত দেড়টার দিকে টেকনাফ ডিএনসির টীম ও র‍্যাব-১৫ এর সমন্বয়ে একটি রেইডিং টীম গঠন করে হোয়াইক্যং ইউনিয়নের পশ্চিমের সাতঘরিয়া পাড়াস্থ শেখ উদ্দিনের বসতঘরে অভিযান চালানো হয়। এসময় ১২৮০০ পিস ইয়াবাসহ আটক করা হয় শেখ উদ্দিনকে। আটক ইয়াবার মুল্য ৩৮ লাখ ৪০ হাজার টাকা।

গ্রেফতারকৃত শেখ উদ্দিন টেকনাফ মডেল থানাধীন হোয়াইক্যং ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ড সাতঘরিয়াপাড়ার মৃত ইসলাম মিয়ার ছেলে। অভিযানের খবর পেয়ে পালিয়ে যান একই এলাকার মোহাম্মদ হোছনের ছেলে মো. সামসু উদ্দিন (২৯) ও মোহাম্মদ হোছেন আয়ুব আলী (৩৬)।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর টেকনাফ বিশেষ জোনের সহকারী পরিচালক সিরাজুল মোস্তফা জানান, এব্যাপারে ধৃত শেখ উদ্দিনসহ পলাতক আরো দু’জনকে আসামী করে টেকনাফ মডেল থানায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, মাদকের বিরুদ্ধে ডিএনসি ও র‍্যাব-১৫ এর যৌথ অভিযান চলমান আছে এবং আরও জোরদার করা হবে।

 

ডেইলিরূপান্তর/আরএ/এস.

  • 21
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ