মহানবী (সা.)-এর আগমনের দিন বিশ্বজগতের জন্য পরম সৌভাগ্যের দিন

বাংলাদেশ আনজুমানে তালামীযে ইসলামিয়া কেন্দ্রীয় পরিষদের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান ফরহাদ বলেন, মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) ছিলেন পৃথিবীর সকল নির্যাতিত মানুষের অকৃত্রিম বন্ধু ও পরম কল্যাণকামী। যিনি মানব জাতিকে অন্ধকার থেকে আলোর পথে নিয়ে আসলেন, তাঁর চেয়ে উত্তম ও কল্যানকামী মহামানব এ পৃথিবীতে দ্বিতীয় কেউ নেই। মহানবীর (সা.) নবুওয়াত প্রকাশের পর মহান আল্লাহর বাণী প্রচারে আরবসহ সমগ্র জাহানে নবজাগরণ সৃষ্টি হয়, বেদ্বীন শক্তির মসনদ ভেঙ্গে পড়ে, নতুন সভ্যতা ও সংস্কৃতির উন্মেষ ঘটে। সূচনা ঘটে নতুন এক জীবন ব্যবস্থার। ঐক্য, শান্তি, সাম্য ও মানবকল্যাণের চিন্তা-চেতনা বৈশ্বিক চিন্তাধারাকে ব্যাপকভাবে প্রভাবিত করে । যার ওছিলায় এই বিশ্বজগত পরম শান্তির এমন দিশা খুঁজে পেলো, তাঁর এ ধূলির ধরায় আগমনের দিনটি বিশ্বজগতের জন্য পরম সৌভাগ্যের দিন। আমাদের উচিত এই দিনটি গুরুত্ব সহকারে পালন করা।

পবিত্র ঈদে মীলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে ২৮ অক্টোবর, বৃহস্পতিবার, লতিফিয়া হিফযুল কুরআন মাদরাসা, সিলেট’র হলরুমে বাংলাদেশ আনজুমানে তালামীযে ইসলামিয়া সিলেট মহানগরাধীন ৭ ও ৮ নং ওয়ার্ড শাখার যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

৭নং ওয়ার্ড শাখার সভাপতি ময়নুল ইসলাম মুন্না’র সভাপতিত্বে ও সহ-সাধারণ সম্পাদক গুলজার আহমদ’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সিলেট মহানগরীর সাংগঠনিক সম্পাদক এম শামছ উদ্দিন।

৮ নং ওয়ার্ড শাখার সহ-সভাপতি আব্দুল মজিদের স্বাগত বক্তব্যের মাধ্যমে সূচিত সেমিনারে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট মহানগরীর সাবেক সদস্য অলিউর রহমান, সিলেট মহানগরীর সহ-শিক্ষা ও সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক দিলোয়ার হোসেন, মদনমোহন কলেজ শাখার সভাপতি রাকিবুর রহমান আতিক ও সহ-সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মুনিম।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিলেট মহানগরাধীন ১নং ওয়ার্ড শাখার সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম শাহরিয়ার, ২৩ নং ওয়ার্ড সাধারণ সম্পাদক নুরুল হাসান, ৭ নং ওয়ার্ড সহ-সভাপতি জুবায়ের আহমদ, ৮নং ওয়ার্ড সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া আহমদ প্রমুখ।

ডেইলিরুপান্তর/আবির

  • 29
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ