নোয়াখালীতে সাম্প্রদায়িক হামলা মামলায় আরও দুই আসামির জবানবন্দি

নিহত ইসকনভক্ত প্রান্ত দাসকে পেটানোর কথা স্বীকার

নোয়াখালীরতে সাম্প্রদায়িক হামলা মামলার ঘটনায় আরও দুই আসামি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। দুই আসামী হলেন-চৌমুহনী পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের মৃত নুরুল হক মিয়ার ছেলে মোঃ আব্দুর রহিম (৪০) ও ৩ নম্বর ওয়ার্ডের আলীপুর টিএনটি কলোনীর মো: মফিজের ছেলে মোঃ আরিফ (২১)।

বৃহস্পতিবার রাতে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নবনীতা গুহ ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় আসামিদের জবানবন্দি রেকর্ড করেন।

জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মো: শহীদুল ইসলাম জানান, তাদের একজন জেলার বাণিজ্যিক শহর চৌমুহনীর ব্যাংক রোডে ইসকন মন্দিরে হামলার সময় ইনকনভক্ত প্রান্ত চন্দ্র দাসকে পিটিয়ে আহত করার কথা স্বীকার করেছে। ঘটনার পরদিন মন্দিরের পাশে পুকুর থেকে প্রান্ত দাসের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশ সুপার জানান, দুই আসামীর মধ্যে আব্দুর রহিম তার জবানবন্দিতে গত ১৫ অক্টোবর চৌমুহনীতে ইসকন মন্দিরসহ অন্যান্য মন্দির ভাংচুর এবং ইসকন মন্দিরে প্রান্ত চন্দ্র দাসকে পিটিয়ে আহত করার কথা স্বীকার করে। পরদিন মন্দিরের পাশের পুকুর থেকে প্রান্ত দাসের লাশ পাওয়া যায় বলে জবানবন্দিতে উলেখ করে সে। এসব জবানবন্দিনে ঘটনায় আরও ২৭ জনের নাম উল্লেখ করেছে আব্দুর রহিম।

এনিয়ে চৌমুহনীতে সাম্প্রদায়িক হামলা মামলায় বিভিন্ন সময় গ্রেপ্তার হওয়া মোট ৭ আসামি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে বলে জানান এসপি।

 

ডেইলিরূপান্তর/ডি/জি.

  • 15
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ