স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি সাম্প্রদায়িক হামলা চালিয়েছে- নোয়াখালীতে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান এমপি বলেছেন, বঙ্গবন্ধুকে যারা হত্যা করেছে তারা এ হামলা চালিয়েছে। যারা স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি তারা এই হামলা চালিয়েছে। এরা মানুষ নয়, এরা পশুর থেকেও অধম। যে ঘটনা ঘটেছে তা কোনো ধর্মের মানুষ করতে পারেনা। কেননা কোনো ধর্মে এমন হামলা ও ভাংচুর সমর্থন করে না।

গতকাল বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) রাত পৌনে ১০ টায় চৌমুহনী পৌরসভা হলরুমে আন্তঃ ধর্মীয় সংলাপ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

ফরিদুল হক খান বলেন, সরকারের উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে বাধাগ্রস্ত করতে এ হামলা চালানো হয়েছে। তাদের উদ্দেশ্য ছিল যেনো আগামী নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে না পারে। যারা এই কাজ করেছে তাদের সকলকে আইনের আওতায় আনা হবে। তাদের আটক করতে প্রশাসনকে সহযোগিতা করেন। যেনো এমন ঘটনা আর না হতে পারে। আল্লাহ তায়ালা কোরআনে অসংখ্য জায়গায় বিধর্মীদের সাথে খারাপ ব্যবহার করতে নিষেধ করেছেন।

নোয়াখালীর জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ খোরশেদ আলম খানের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন, নোয়াখালী-৩ (বেগমগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ মো. মামুনুর রশীদ কিরণ, দিনাজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান মনোরঞ্জন শীল গোপাল, পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শহীদুল ইসলাম, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ডা. এবিএম জাফর উল্যাহ চৌমুহনী পৌরসভার মেয়র খালেদ সাইফুল্লাহ, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ভাইস চেয়ারম্যান সুব্রত পাল প্রমূখ।

উল্লেখ্য, একই দিন সন্ধ্যার দিকে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান চৌমুহনীতে সাম্প্রদায়িক হামলায় হিন্দু সম্প্রদায়ের ক্ষতিগ্রস্ত উপাসনালয় গুলো পরিদর্শন করেন। পরিদর্শন শেষে সহিংসতায় নিহত যতন সাহা ও প্রান্ত দাসের পরিবারের হাতে ৫০ হাজার টাকা করে ১ লক্ষ টাকার অনুদান তুলে দেন।

ডেইলিরুপান্তর/আবির

  • 14
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ