শান্তিপূর্ণ মিছিলে গুলি চালিয়েছে পুলিশ: রিজভী

বিএনপির সিনিয়র যগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী অভিযোগ করেছেন দলের পূর্বঘোষিত শান্তিপূর্ণ মিছিলে হামলা ও গুলি চালিয়েছে পুলিশ।

মঙ্গলবার(২৬ অক্টোবর) বেলা দুইটার দিকে নয়াপল্টন অফিসে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় ব্যর্থতার প্রতিবাদে পূর্বঘোষিত শান্তিপূর্ণ মিছিলে হামলা ও গুলি চালিয়েছে পুলিশ। এসময় পুলিশ শতাধিক নেতাকর্মীকে আটক করেছে। এখনও বিভিন্ন স্থান থেকে আটকের খবর পাওয়া যাচ্ছে।

তিনি বলেন, আটক নেতাকর্মী হলেন-মোঃ শাখাওয়াত হোসেন নান্নু -সাবেক সদস্য, কৃষকদল কেন্দ্রীয় আহবায়ক কমিটি; এ আর বি মামুন-সহ-সভাপতি, তাঁতী দল নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখা; আবদুর রেজ্জাক-যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক-তাঁতীদল-নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখা; মোঃ ফরিদ – যুবদল নেতা কামরাঙ্গিরচর থানা; চায়না সুমন – যুবদল নেতা – নিউমার্কেট থানা; মোঃ জসিম – যুবদল নেতা- যাত্রাবাড়ী থানা; রেজাউল ইসলাম প্রিন্স – যুবদল নেতা, রমনা থানা; মোঃ সুমন- বিএনপি নেতা, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ; মোঃ রাসেল – লালবাগ থানা বিএনপি ঢাকা মহানগর দক্ষিণ; মোঃ রাকিব, বদরুল, জুয়েল, লালবাগ থানা বিএনপি, মোঃ শুক্কুর, শাহবাগ থানা বিএনপি নেতা; ঢাকা মহানগর দক্ষিণ; মোঃ মুতাছিন বিল্লাহ-ছাত্রদল নেতা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়; মোঃ জেহাদুল রঞ্জু- ছাত্রদল নেতা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়; মোঃ আবু সুফিয়ান – ছাত্রদল নেতা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়; আবু হান্নান তালুকদার- ছাত্রদল নেতা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়; জাসাস নেতা হাজী আবদুল কাইয়ুম, মোঃ জসিম উদ্দিন, ৬২ নং ওয়ার্ড বিএনপি নেতা; মোঃ তুহিন – ডেমরা থানা বিএনপি নেতা; রাকিব, রাসেল, সালাহউদ্দিন, মহিউদ্দিন, ইমরান গাজি; যুবদল নেতা ইউনুস; ঢাকা উত্তর স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা রুস্তুম আলী; বাবুল আহমেদ মুন্না; শাহাদাৎ হোসেন; নাসির উদ্দিন বিপ্লব; বোরহান উদ্দিনসহ শতাধিক নেতাকর্মী।

রিজভী আরও বলেন, পুলিশের গুলি ও হামলায় গুরুতর আহত হয়েছেন-গোলাম মাওলা শাহীন – আহবায়ক, যুবদল ঢাকা মহানগর দক্ষিণ; স্বেচ্ছাসেবক দল ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি এস এম জিলানী ও সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলামসহ ১৫ জনের অধিক নেতাকর্মী পুলিশের লাঠিচার্জে আহত হয়েছেন। মিজান – যুবদল নেতা, শাহবাগ থানা; টুটুল – যুগ্ম আহবায়ক, কদমতলী থানা; হানু মিয়া – যুবদল নেতা, কোতয়ালী থানা; মোস্তফা – যুবদল নেতা, রমনা থানা; শফিকুল আলম রুবেল – যুবদল সদস্য, শাহবাগ থানা; পল্টন থানা বিএনপি নেতা মো: আনোয়ার হোসেন গুলিবিদ্ধ, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি নেতা জিয়াউল আনোয়ার, জাহিদ, স্বপন, সুফিয়ান, চন্দন, শামসুদ্দিন ভুইয়া, আব্দুর রশিদ, আমির হোসেন, সাত্তার, শামিম, যুবদল নেতা মইন, মোহন মোল্লা, জাবেদ ইকবাল – সাবেক যুগ্ম সম্পাদক, ঢাকা মহানগর পূর্ব; ছাত্রদলের সাবেক সহ-সভাপতি মনিরা আক্তার রিক্তা, সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও ইডেন মহিলা বিশ^বিদ্যালয় ছাত্রদলের সাবেক আহবায়ক সেলিনা সুলতানা নিশিতা, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক শওকত আরা উর্মি; সোনিয়ারা – মহিলা দল নেত্রী – হাত ভেঙ্গে দেয়া হয়েছে; নাসরিন – মহিলা দল নেত্রী; ওমর ফারুক কাওসার-সহ সভাপতি ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদ; মহানগর পশ্চিম ছাত্রদলের যুগ্ম আহবায়ক এমদাদুল হক ভূঁইয়া; সুজন মোল্লা – যুগ্ম সম্পাদক- জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়; মিল্লাত উদ্দিন ভূঁইয়া, যুগ্ম সম্পাদক- জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়; আজিমুল হাসান চৌধুরী – যুগ্ম সম্পাদক- জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়; মোঃ মহসিন – ছাত্রদল নেতা- সিদ্ধেশরী বিশ্ববিদ্যালয় শাখাসহ ৬০ জনের অধিক নেতাকর্মী। গুরুতর আহতদের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে তিনি বলেন, পুলিশের এই ন্যাক্কারজনক হামলা এবং নেতাকর্মীদেরকে গ্রেফতারের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং অবিলম্বে আটককৃতদের নি:শর্ত মুক্তির জোর দাবি করছি।

ডেইলিরুপান্তর/আবির

  • 37
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ