প্রধান শিক্ষকের স্বাক্ষর জাল করে পরীক্ষা কেন্দ্র পরিবর্তনের অভিযোগ

দিনাজপুরের হাকিমপুর উপজেলার ৪ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষকের স্বাক্ষর জাল করে এসএসসির পরীক্ষা কেন্দ্র পরিবর্তন করায় ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকরা শিক্ষা মন্ত্রি, সচিব,স্থানীয় সংসদ সদস্যসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত আবেদন করছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, হাকিমপুর উপজেলার পাউশগাড়া স্কুল এন্ড কলেজ, নওপাড়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, নয়ানগর উচ্চ বিদ্যালয় ও ডাঙ্গাপাড়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা হাকিমপুর উপজেলার বাংলাহিলি পাইলট স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্রে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করে আসছিল। কিন্ত হঠাৎ তাদের কেন্দ্র পরিবর্তন করে পাশ্ববর্তী বিরামপুর উপজেলার কাটলা উচ্চ বিদ্যালয় করায় তারা হতভম্ব হয়েছেন। এদিকে হঠাৎ করে পরীক্ষা কেন্দ্র পরিবর্তন করায় ওই ৪ টি বিদ্যালয়ের ১শ ৫০ জন পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকরাও পড়ছেন র্দুচিন্তায়।

শিক্ষার্থীরা বলেন, বিরামপুর উপজেলার কাটলা উচ্চ বিদ্যালয় প্রতন্ত গ্রামাঞ্চলে হওয়ায় যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো না। আমরা শিক্ষার্থীরা যথা সময়ে পরীক্ষা কেন্দ্রে উপস্থিত হতে পারিনা। তাদের দাবি হাকিমপুর উপজেলার বাংলাহিলি পাইলট স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্র রাখা হোক।

হাকিমপুর উপজেলার পাউশগাড়া স্কুল এন্ড কলেজ এর প্রধান শিক্ষক সেলিম রেজা, নওপাড়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক জাহাঙ্গীর আলম, নয়ানগর উচ্চবিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক আতিয়ার রহমান ও ডাঙ্গাপাড়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা লায়লা আরজুমান জানান, মাধ্যমিক স্কুল সাটিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষা কেন্দ্র পরিবর্তনে আগ্রহী প্রতিষ্ঠানের প্রধানকে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড দিনাজপুর বরাবরে আবেদন করতে হবে কিন্তু তারা কেন্দ্র পরিবর্তনের কোন প্রকার আবেদন করেন নাই। এবারে তাদের ৪টি স্কুল থেকে প্রায় ১৫০ জন ছাত্র-ছাত্রী পরিক্ষায় অংশ গ্রহন করবেন। বাংলাহিলি পাইলট স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্রে এসএসসি পরীক্ষার অংশগ্রহনের প্রস্তুতি নিয়ে পাঠ কার্যক্রম চালিয়ে আসছেন।

চলতি বছরের রোববার (১৮ অক্টোবর) তারিখে আমরা জানতে পারি এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্র আমাদের না জানিয়ে আকস্মিক ভাবে বিরামপুর উপজেলার কাটলা উচ্চ বিদ্যালয়ে কেন্দ্র করা হয়েছে। কাটলা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নিজ স্বার্থ সিদ্ধির জন্য আমাদের স্বাক্ষর জাল জালিয়াতি করে কেন্দ্র পরিবর্তনের এ জঘন্যতম কাজটি করেছেন। তারা কাটলা উচ্চবিদ্যালয়ে কেন্দ্র বাতিল করে নিজ উপজেলার বাংলাহিলি পাইলট স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্রে বহাল রাখার দাবি জানিয়েছেন।

এদিকে কাটলা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এর সাথে মুঠোফোনে কথা বললে তিনি জানান, তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। তিনি বলেন বোর্ড কর্তৃপক্ষ স্কুলের কেন্দ্র পরিবর্তন করেছে। বাংলাহিলি পাইলট স্কুল এন্ড কলেজের প্রধান শিক্ষক গোলাম মোস্তফা জানান, পাউশগাড়া স্কুল এন্ড কলেজ, নওপাড়া বালিকা উচ্চবিদ্যালয়, নয়ানগর উচ্চ বিদ্যালয় ও ডাঙ্গাপাড়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থীরা বাংলাহিলি পাইলট স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্রে গত বছর পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করেছেন। এবারে তাদের নামের তালিকা শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষ দেয়নি।

 

ডেইলিরূপান্তর/আরএ/এইচ.

  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ