রাণীশংকৈলে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের গণ-অবস্থান অনশন ও মানববন্ধন

সাম্প্রদায়িক সহিংসতা সারা দেশে প্রতিমা, পূজামণ্ডপ, মন্দিরে হামলা, ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগের প্রতিবাদে ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈলে গণ-অনশন অবস্থান কর্মসূচি সহ মানববন্ধন পালন করছে রাণীশংকৈল উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদ হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদ ও সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বিভিন্ন সংগঠন।

শনিবার (২৩ অক্টোবর) সকালে উপজেলার বন্দর চৌরাস্তায় এ কর্মসূচি পালন করা হয়। গণঅবস্থানে কর্মসূচীতে পার্শবর্তী হরিপুর উপজেলার সহ কয়েক হাজার মানুষ অংশ গ্রহণ করেন রাস্তার দুইপাশে।

এসময় মানববন্ধনে সাম্প্রদায়িক হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বক্তব্য রাখেন ৩০১ আসনের সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাবেক সংসদ সদস্য সেলিনা জাহান লিটা, পৌরমেয়র আলহাজ্ব মোস্তাফিজুর রহমান, উপজেলা আ’লীগ সভাপতি অধ্যক্ষ সহদুল হক, সাধারণ সম্পাদক তাজউদ্দীন আহমেদ, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আহমদ হোসেন বিপ্লব, সাবেক অধ্যক্ষ তাজুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমান, রাণীশংকৈল পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি ছবি কান্ত দেব, সাধারণ সম্পাদক সাধন কুমার বসাক, প্রভাষক প্রশান্ত কুমার বসাক সাবেক চেয়ারম্যান অমল চন্দ্র রায় প্রমূখ।

মানববন্ধন শেষে প্রতিবাদ মিছিল পৌর শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। অনশন অবস্থান কর্মসূচি মানববন্ধনে বক্তারা তাদের বক্তব্যে বলেন সাম্প্রদায়িক হামলার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তির প্রত্যেককে গ্রেপ্তার করতে হবে। এসব ঘটনা সবার আগে বিচার করতে হবে। কারণ, এটা অস্তিত্ব রক্ষার লড়াই। এটা আমাদের বাঁচা-মরার লড়াই। এই লড়াইয়ে জিততে হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনা মানা যায় না। এসব ঘটনার দ্রুত বিচার করতে হবে। বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িকতার কোনো স্থান নেই। এই দেশ মৌলবাদ ও জঙ্গিবাদের দেশ নয় এই দেশ হিন্দু-মুসলিম-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান সকলের দেশ। থেকেই সাম্প্রদায়িক এবং উস্কানি মূলক কার্যকলাপ কে কঠিন হস্তে রুখে দিতে হবে।

 

ডেইলিরূপান্তর/আরএ/এ.

  • 44
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ