আমরা সবাই মিলেমিশে থাকতে চাই

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় সর্বস্তরের মানুষকে এক কাতারে চায় বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ। সংগঠনটির নীলফামারী জেলা শাখার আয়োজনে শনিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আয়োজিত গণ-অনশন কর্মসুচীতে এই আহবান জানানো হয়।

এতে সভাপতিত্ব করেন বাবু খোকারাম রায়। প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা উল্লেখ করেন, মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে পরাজিত শত্রুরা এখোনো ষড়যন্ত্র করে চলেছে। তারা হিন্দুদের উপর আক্রমণ করে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা সৃষ্টির পায়তারা করছে। শারদীয় উৎসবে দেশের বিভিন্ন স্হানে প্রতিমা ভাংচুর, হিন্দুদের বাড়ি ঘরে হামলা এমনকি অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে।

আমরা মানুষ হিসেবে সম্প্রীতি বজায় রেখে বসবাস করে আসছি বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে। এই সম্প্রীতি আমরা নষ্ট করতে চাই না। এজন্য সব মানুষ এক কাতারে থেকে সম্প্রীতি বজায় রাখা দরকার। সংগঠনের সাংগঠনিক সম্পাদক সুধির কুমার রায়ের সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন আয়োজক সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মৃনাল কান্তি রায়, জেলা যুবলীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট রামেন্দ্র নাথ বর্ধন বাপ্পী, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শাহিদ মাহমুদ, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ওয়াদুদ রহমান, জেলা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি এ্যাডভোকেট অ²য় কুমার রায়, মানবতার কল্যান ফাউন্ডেশন জেলা কমিটির সহ- সভাপতি রতনা সিনহা প্রমুখ।

গণ-অনশণ কর্মসুচী শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে কালিবাড়ি মন্দিরে এসে শেষ হয়। বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ নীলফামারী জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক মৃনাল কান্তি রায় বলেন, আমরা সবাই মিলেমিশে থাকতে চাই। যার যার ধর্ম তারা স্বাধীন ভাবে পালন করবে। কেউ কারো জন্য হুমকী হয়ে কেনো থাকবে। এটা কি অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের চেতনায় পড়ে না। আজ সারাদেশে যেভাবে প্রতিবাদ শুরু হয়েছে নিশ্চয় আমরা মানুষ হিসেবে বেঁেচ থাকার সঠিক বিচার পাবো।

ডেইলিরুপান্তর/আবির

  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ