মাধবপুরে জাল দলিলের মাধ্যমে নামজারীর আবেদন ৩ জন আটক

হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলায় জাল দলিলের মাধ্যমে নাম জারীর আবেদনকারী ৩ জনকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতরা নামজারী ও জমা খারিজের জন্য নোয়াপাড়া ইউনিয়ন ভূমি অফিসের মাধ্যমে ৩৩১০/১৯৮৭ নম্বর দলিলভুক্ত ১৯ শতক জমির কাগজপত্র ও এ সংক্রান্ত আবেদন সহকারী কমিশনার ভূমি বরাবরে দাখিল করেন। সংস্লিষ্ট ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তার কাছে বিষয়টি সন্দেহজনক মনে হওয়ায় তিনি সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ মহিউদ্দিনকে অবহিত করেন।

জমির সঠিকতা নিরূপনের উদ্দেশ্যে সহকারী কমিশনার (ভূমি) আবেদনকারী ৩ ভাই জগদীশপুর ইউনিয়নের অন্তর্গত বেজুরা গ্রাম নিবাসী মৃত সৈয়দ হোসেনের পুত্র গোলাম হোসেন (৮০), মাতব্বর হোসেন (৭৬) এবং কামরুল হোসেন (৬৫) কে গত ১১ অক্টোবর তার কার্যালয়ে হাজির হওয়ার নোটিশ দেন। নির্ধারিত দিনে উপস্থিত হলে যাচাই বাচাই ও জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে তারা স্বীকার করেন যে দলিলটি ভূয়া।

জগদীশপুর ইউনিয়নের সন্তোষপুর গ্রামের কুদ্দুস মিয়া ও বেজুরা গ্রামের রাজিব চন্দ্র দেবের সহযোগীতায় জাল দলিল তৈরীর মাধ্যমে নামজারী ও জমা খারিজের আবেদন দাখিল করেছেন। জেলা রেজিস্ট্রার অফিস থেকে দলিল সংগ্রহ করে পরীক্ষা করার পর জাল দলিলের বিষয়ে নিশ্চিত হয়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ মহিউদ্দিন থানা পুলিশের সহায়তায় তাদের আটক করেন। এ ব্যাপারে নোয়াপাড়া ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা সুধেন্দু ভট্টাচার্য বাদী হয়ে আটক ৩ জন সহ মোট ৫ জনকে আসামী করে মাধবপুর থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

সুধেন্দু ভট্টাচার্য জানান প্রকৃতপক্ষে এই জমির মালিক বেজুড়া গ্রামের নির্মলাবালা সেন নির্মলাবালা সেনের উত্তরাধিকারীরা জমিটি অন্য একজনের কাছে বিক্রি করে দিয়েছেন। আটককৃতদের গতকাল (মঙ্গলবার) আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে বলে থানা সূত্র নিশ্চিত করেছে। সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ মহিউদ্দিন জাল দলিলের মাধ্যমে নামজারীর আবেদন দাখিলকারী তিন ভাইকে আটক করা হয়।

ডেইলিরুপান্তর/আবির

  • 10
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ