জন্ম নিবন্ধন করণে ভোগান্তির শিকার

মোংলা পোর্ট পৌরসভায় জন্ম নিবন্ধন করণে অদক্ষ্য কর্মকর্তাদের গাফিলতি ও ভুলের কারণে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে পৌরসভার নাগরিকদের। অনতিবিলম্বে ভোগান্তি দূরকরনের দাবি জানিয়েছে পৌর নাগরিকরা। সন্তানের স্কুলে ভর্তি, কারোও আবার চাকরির জন্য প্রয়োজন হচ্ছে জন্ম নিবন্ধন।কিন্তু কর্মকর্তাদের গাফিলতি ও ভুলের কারণে জন্ম তারিখ, নিজের নাম, পিতা-মাতার নাম আবার লিঙ্গ নির্ধারণে ভুল করছে অদক্ষ্য কর্মকর্তারা। জনসাধারণের দাবি কর্তৃপক্ষের ভুলের কারণে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে সাধারণ মানুষদের।নির্ধারিত ফি দিয়েও একবারে সমাধান পাওয়া যাচ্ছেনা। দফায় দফায় গুনতে হচ্ছে বাড়তি অর্থ। কর্তৃপক্ষের ভুল যেন চেপে বসেছে সাধারণ মানুষের উপর।

পৌরসভা কতৃপক্ষের স্বাস্থ্য সহকারী মোহাম্মাদ মাসুদ আলমকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন, উপজেলা কর্তৃপক্ষের হাফিজুল ইসলামের ভুলে এই সমস্যা সৃষ্টি হচ্ছে।আবার উপজেলা কর্তৃপক্ষের কাছে জানতে চাইলে তারা জানায়, পৌরসভার কর্তৃপক্ষের ভুলে এ জটিলতা। দিনের পর দিন শুধুই ফাইল নিয়ে এ দপ্তর থেকে ও দপ্তরে ঘুরতে হচ্ছে তাদের। শতকরা ৯০ শতাংশ সাধারণ মানুষকে কর্তৃপক্ষের ভুলের বোঝা বহন করতে হচ্ছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ভুক্তভোগী শারমিন আক্তার জানায়, আমার সঠিক তথ্য থাকা সত্বেও কর্তৃপক্ষ আমার জন্ম তারিখ, পিতার নাম এবং মেয়ে থেকে ছেলেতে রুপান্তরিত করে।

এ ব্যাপারে ভুক্তভোগীরা আরো জানায়, আমাদের সকল তথ্য সঠিক থাকার পরেও কর্তৃপক্ষের ভুলের কারণে নিজের সন্তানকে স্কুলে ভর্তি করতে নানা জটিলতার সৃষ্টি হচ্ছে। জন্ম তারিখ ভুল, বাবার নাম ভুল, আবার লিঙ্গ নির্ধারণে আনেকেই মেয়ে থেকে ছেলে/পুরুষ থেকে নারী হচ্ছে।

অনতিবিলম্বে সরকারের কাছে আবেদন জানিয়ে আরও বলেন, দ্রুত এসকল সমস্যার সঠিক সমাধান না হলে জনসাধারণকে পোহাতে হবে চরম দুর্ভোগ। নিবন্ধন প্রক্রিয়াকে একটি সঠিক পদ্ধতিতে আনার প্রয়োজন বলে মনে করেন তারা।

ডেইলিরুপান্তর/আবির

  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ