সিলেটের কোম্পানীগঞ্জের (ইউএনও’র) বিরুদ্ধে খাস কালেকশনের টাকা আত্মসাৎতের অভিযোগ


সিলেট জেলার কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার ভোলাগঞ্জ হতে খাস কালেকশনের টাকা আত্মসাৎতের অভিযোগে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুমন আচার্য এর বিরুদ্ধে জেলাপ্রশাসকের নিকট অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। ৩ অক্টোবর সিলেট জেলাপ্রশাসক বরাবর অভিযোগ করেন স্থানীয় একটি মহল।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ভোলাগঞ্জ হতে খাস কালেকশনে’র টাকা উত্তলনে স্থানীয়রা শ্রমিক হিসেবে কাজ করতে চাইলেও উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) নিজের আত্মীয়দের মাধ্যমে খাস কালেকশনে’র টাকা উত্তলন করেন। যার পরিমান প্রতিদিন ১০-১২ লক্ষ টাকা। সরকারি কোষাগারে জমা দেখানো হয় ১ লক্ষ টাকা। যার ১০-১১ লক্ষটাকা হয়ে যায় আত্মসাৎ।

এছাড়াও মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে হতদরিদ্রদের দেওয়া ঘরের আবেদন করলে সেখানে ও আত্মীয়করণ করা হয়।

জানা-যায়, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুমন আচার্য একটি দালাল চক্রের দ্বারা উৎকুচ গ্রহনের মাধ্যমে সকল কাজ করে যাচ্ছেন। এলাকার প্রভাবশালী বিত্তবান লোকদের তিনি সর্বাধিক সহযোগিতা করে থাকেন। অসহায় ও হতদরিদ্রদের কাছ থেকে প্রভাবকাটিয়ে ভোগ করেন, বঞ্চিত করেন তাদেরকে সরকারের দেওয়া বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা হতে। যা শক্তের বক্ত,নরমের যম, অতিভক্তি চোরের লক্ষন। এই দূর্নীতি অনুসরণ করেন তিনি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ইউএনও) সুমন আচার্য’র অপর্কম ও দূর্নীতির বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিয়ে সরকারি কোষাগারকে ভরাডুবি হতে রক্ষা করার দাবি জানান অভিযোগ কারিরা।

ডেইলিরুপান্তর/আবির

  • 33
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ