নড়াইলের লোহাগড়ায় শ্বাসনালীতে মাংস বিঁধে শিশুর করুণ মৃত্যু

লোহাগড়ায় একটি ফাস্ট ফুডের দোকানে চিকেন মিটবনের মাংসযুক্ত খাবার শ্বাসনালীতে আটকে আব্দুল্লাহ আল মামুন (৯) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, আব্দুল্লাহ আল মামুন ও তার এক বন্ধু রোববার বিকেলে থানার সামনে ‘কাজী ফার্মস’ নামে একটি ফাস্ট ফুডের দোকানে চিকেন মিটবন খেতে যায়। খাওয়ার একপর্যায়ে আব্দুল্লাহ আল মামুনের শ্বাসনালীতে হাড়যুক্ত মাংস আটকে যায়। দ্রুত তাকে লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন।

কাজী ফার্মসের মালিক সোহাগ জানান, শিশুটি তার দোকানে চিকেন মিটবন খেতে বসে। খাবারের সময় তার গলায় চিকেন মিটবনের মাংস বিঁধে যায়। তখন দোকানের কর্মচারীরা তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানে শিশুটির মৃত্যু হয়।

লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্তব্যরত ডাক্তার বিপাশা মোশারফ জানান, জরুরি বিভাগ আনার আগেই শিশুটির মৃত্যু হয়েছে। তার গলার শ্বাসনালীতে খাবার বিঁধে মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। লোহাগড়া থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) শেখ আবু হেনা মিলন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আব্দুল্লাহ লোহাগড়া শহরের লক্ষ্মীপাশা এলাকার কাঠ ব্যবসায়ী রাশেদ খন্দকার জুনায়েতের ছেলে। সে আরএল পাশা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র।

 

ডেইলিরূপান্তর/আরএ/এইচ.

  • 20
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ