নিরপেক্ষ সরকার না হলে নির্বাচনে যাব না: ফখরুল

বর্তমান সংবিধান অনুযায়ী দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন হবে বলে আওয়ামী লীগের নেতাদের বক্তব্যের জবাবে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলছেন, ‘আমাদের কথা খুব পরিষ্কার, নির্বাচন নির্বাচন খেলা আর হবে না। নির্বাচন হতে হলে অবশ্যই নির্বাচনকালীন একটি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে হতে হবে, নির্বাচন হতে হলে অবশ্যই একটি নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের পরিচালনায় নির্বাচন হতে হবে। দেশে সুষ্ঠু ভোট হলে আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ৩০টি আসনও পাবে না বলে মন্তব্য করে মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, আওয়ামী লীগের জনপ্রিয়তা তলানিতে ঠেকেছে। এ কারণে তারা কী করেছে? সমস্ত রাষ্ট্রযন্ত্রকে দলীয়করণ করেছে।

গতকাল শনিবার রাজধানীর রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে বিএনপি আয়োজিত ‘২০০১ সালের ১ অক্টোবর তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে সর্বশেষ নিরপেক্ষ নির্বাচন’ শীর্ষক আলোচনাসভায় সভাপতির বক্তব্যে মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন। আরো বক্তব্য রাখেন স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, রাষ্ট্রবিজ্ঞানী দিলারা চৌধুরী, দলের ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন, আবদুল আউয়াল মিন্টু, আমান উল্লাহ আমান, আব্দুস সালাম, ফজলুল হক মিলন, সাইফুল আলম নীরব, সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, মো. মোরতাজুল করিম বাদরু, আবদুল কাদের ভুঁইয়া জুয়েল, ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল প্রমুখ।

আলোচনাসভায় উপস্থিত নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে মির্জা ফখরুল বলেন, স্লোগান দিয়ে আন্দোলন হবে না। আন্দোলনের জন্য তৈরি হতে হবে, প্রস্তুত হতে হবে। এখানে যারা তরুণ আছে, তাদের অনেকের আন্দোলন সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা নেই। এখানে খায়রুল কবির খোকন, আমান উল্লাহ আমনরা যারা আছেন, তারা জানেন কীভাবে আন্দোলন করতে হয়। সেটা মাথায় রেখে আমাদের সব সংগঠনকে তৈরি করতে হবে।

ডেইলিরুপান্তর/আবির

  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ