কাশিয়ানীতে চিকিৎসকের ওপর হামলার ঘটনায় মামলা

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী ১০০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. সুব্রত সাহার ওপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় অজ্ঞাত ৭/৮ ব্যক্তির নামে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. তাপস বিশ্বাস বাদী হয়ে শুক্রবার (১ অক্টোবর) সন্ধ্যায় কাশিয়ানী থানায় মামলাটি দায়ের করেন। এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন মাইক্রোবাস চালক ফরিদপুর জেলার আলফাডাঙ্গা উপজেলার মালা গ্রামের আব্দুর রহিম বিশ্বাস, কাশিয়ানী উপজেলার খায়েরহাট গ্রামের আরমান শিকদার, রুবেল শিকদার ও বাগঝাপা গ্রামের ইশানুর শেখ। কাশিয়ানী থানার ওসি (তদন্ত) মুহাম্মাদ ফিরোজ আলম মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, চিকিৎসক সুব্রত সাহার ওপর হামলার ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে মাইক্রোবাস চালকসহ চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের শনিবার আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ৩০ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় ডা. সুব্রত সাহা কাশিয়ানী বাসষ্ট্যান্ড থেকে কাঁচাবাজার করে বাসায় ফিরতেছিলেন। উপজেলা পশুসম্পদ অফিসের সামনে রাস্তায় পৌছালে একটি মাইক্রোবাসযোগে একদল সন্ত্রাসী এসে অতর্কিতভাবে তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক আহত করে মাইক্রোবাসে পালিয়ে যায়। পরে স্হানীয়রা তাকে উদ্ধার করে কাশিয়ানী ১০০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেন। পরে আশংকাজনক অবস্হায় তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে তার অবস্হার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য শুক্রবার দুপুরে হেলিকপ্টার করে তাকে ঢাকার আল মানার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

ডেইলিরুপান্তর/আবির

  • 26
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ