পাবনা বেড়ায় সাপের কামড়ে স্কুল ছাত্রের মৃত্যু

পাবনার বেড়ায় সাপের কামড়ে রাহাত (১৫) নামের এক স্কুল ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার (৩০সেপ্টেঃ) উপজেলার হাটুরিয়া নাকালিয়া ইউনিয়নের জগনাথপুর গ্রামে। সে জগনাথপুর গ্রামের জাহিদুল ইসলামের ছেলে ও নাকালিয়া সাঁড়াসিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্র।

নিহতের স্বজনরা জানায়, বুধবার রাত ১২ টার দিকে নিজ শয়ন কক্ষের বিছানায় ঘুমাতে গেলে সেখানে অবস্থান করা একটি বিষাক্ত সাপ তাঁর হাতে ছোবল মারে। সাথে সাথে স্বজনরা চিকিৎসার জন্য তাকে বেড়া সরকারী হাসপাতালে নিয়ে আসেন। বেড়া হাসপাতালে জরুরি বিভাগ থেকে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঐ দিন রাতেই তাকে বাড়ি পাঠিয়ে দেন।

মা বাবা হাসপাতালে চিকিৎসায় সন্তুষ্ট না হওয়ায় বাড়িতে রাতভর তার ওঝা দিয়ে (কবিরাজী) চিকিৎসা করে। একপর্যায়ে তাঁর অবস্থার অবনতি ঘটে। পরে গ্রামের এক পল্লী চিকিৎসকের পরামর্শে বৃহপতিবার সকাল ৯ টার দিকে তাঁকে শাহজাদপুর উপজেলার পোতাজিয়া হাসপাতালে নেয়া হয়। পরিক্ষা নিরিক্ষা করে কর্তব্যরত চিকিৎসকেরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। বাড়িতে মৃত রাহাতকে নিয়ে এসে স্বজনরা দুপুর থেকে আবার ওঝাকে দিয়ে ঝাড় ফুক দিয়ে জীবিত করার চেষ্টা চালিয়ে যেতে থাকেন। এক পর্যায়ে রাহাতের মুখ দিয়ে ফেনা বের হতে থাকলে বিকাল চারটার দিকে দিকে ওঝা (কবিরাজ) জানিয়ে দেন সে সকালেই মারা গিয়েছিলো।

নিহতের চাচতো ভাই সাইফুল ইসলাম বলেন, তার ভাইকে বুধবার রাত ১২ টায় সর্প দংশন করেন। সঙ্গে সঙ্গে রাত সারে বারোটার দিকে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে নিয়ে আসেন। জরুরী বিভাগে সে সময় তিনজন কর্মরত ছিলেন। তাঁরা কি ধরনের সাপ কামড় দিয়েছে এমন প্রশ্নের জবাব দিতে না পারলে, একটি সংক্ষিপ্ত ব্যবস্থা পত্র তাঁদের হাতে ধরিয়ে দিয়ে তাকে বাড়ি নিয়ে যেতে বলেন। বেড়া হাসপাতাল থেকে তাঁকে সঠিক চিকিৎসা না দিয়ে ভুল চিকিৎসা দিয়েছে বলে তাদের অভিযোগ করেন ।

তাকে বেড়া হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা না দিয়ে ফিরিয়ে দেয়া হয়েছে এমন অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাক্তার ফাতেমা তুজ জান্নাত বলেন, তিনি এমন ঘটনা ঘটেছে এটি প্রথম শুনলেন। বুধবার রাতে জরুরি বিভাগে দ্বায়িত্বরতদের বক্তব্য শুনে তিনি শনিবার বিষয়টির ব্যাখ্যা দিতে পারবেন। শুক্রবার হাসপাতাল বন্ধ থাকায় তিনি পরিস্কার ব্যাখ্যা দিতে পারেননি।

 

ডেইলিরূপান্তর/আরএ/পি.

  • 52
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ