লাখাইয়ে বাল্য বিয়েতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা

হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলার মুড়াকরি ইউনিয়নের ফুলবাড়িয়া গ্রামে ভ্রাম্যমাণ আদালতে পরিচালনার মাধ্যমে বাল্য বিয়ে পন্ড করা হয়েছে।

সোমবার দুপুর ১২টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি)ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট রুহুল আমিন এ বাল্য বিয়ে বন্ধ করেন। সে ওই গ্রামের আব্দুল হক এর ১৬বছরের ৮ম শ্রেণীর স্কুলপড়ুয়া  কিশোরীর মেয়ে জুতিয়া খাতুন।

এ সময় ঘটনাস্থলে কিশোরীর পিতাকে পাওয়া যায়নি। তার মা-কে বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন, ২০১৭ এর অধীন ৪ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। কিশোরীর প্রাপ্ত বয়ষ্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেয়া হবে না মর্মে নির্ধারিত ফরমে মুচলেকা নেয়া হয়।

সহকারী কমিশনার ভূূমি রুহুল আমিন জানান, কিশোরীর নামে ইউপি সচিব ও চেয়ারম্যান কর্তৃক তাদের যৌথ স্বাক্ষরে যে জন্ম সনদ ইস্যু করা হয়েছে তার সাথে স্কুলে সংরক্ষিত রেজিস্ট্রার এ নিবন্ধিত  জন্ম তারিখ এর মিল পাওয়া যায়নি। কোন তথ্যের ভিত্তিতে জন্ম সনদ প্রদান করা হয়েছে সে বিষয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যানকে যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে  অবহিত করার জন্য বলা হয়েছে। ইস্যুকৃত জন্ম সনদ জালিয়াতির আশ্রয় নিয়ে করা হয়েছে মর্মে প্রাথমিকভাবে প্রতীয়মান হয়েছে।

 

ডেইলিরূপান্তর/আরএ/আর.

  • 10
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ