করলার চাষ দাম বেশি থাকায় কৃষকের মুখে হাসি

দেশের উত্তরের জেলা ঠাকুরগাঁওয়ে এবার ব্যপক হয়েছে। করলা চাষে আগ্রহ বেড়েছে অন্যান্য চাষিদের মাঝে। করলার দাম বেশী থাকায় গত বছরের তুলনায় চলতি মৌসুমে দুইগুন বেশী জমিতে করলা চাষ করছে কৃষকেরা।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, সদর উপজেলার রাজাগাঁও, আখানগর, ঝলঝলি, মলানখুড়ি, খড়িবাড়ি, বরদেশ্বরী, উত্তর বঠিনা সহ অনেক গ্রামে করলা চাষ হয়েছে। রাস্তার দুই পাশে অসংখ্য মাচায় ঝুলছে করলা। কৃষকরা করলা ক্ষেতে সেচ, নিড়ানি ও ফল সংগ্রহের কাজে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন।

মলানখুড়ি গ্রামের কৃষক কলিন চন্দ্র রায় জানান, গত বছর ১৭শতক জমিতে করলা চাষ করে লাভবান হয়েছেন। এবার ৪৮ শতক জমিতে করলা চাষ করেন। বর্তমানে করলা মন প্রতি ৯৫০-৯৬০ টাকা দরে বিক্রি করছেন তিনি। এ বছরে বাজার দর ও আবহাওয়া ভালো থাকলে এক লক্ষাধিক টাকার মত করলা বিক্রি হবে বলে তার প্রত্যাশা।

একই এলাকার কৃষক সুধীর রায় জানান,করলার দাম ভালো তাই গত মৌসুমের থেকে এবার বেশি জমিতে করলা চাষ করেছি। তাছাড়া করলা চাষে গোবর সার, খৈল, রাসায়নিক সার ও কীটনাশক ব্যবহার করতে হয়। সেই জমিতে শীতকালীন ফসল আলু চাষ করতে তাদের বেশি সার প্রয়োগ করতে হয় না। করলা চাষে যে সার প্রয়োগ করে তার সাথে সামান্য কিছু সার দিয়ে আলু চাষ করা সম্ভব। তাই আলু চাষাবাদে আরো লাভবান হয়ে থাকেন তিনি।

রাজাগাঁও ইউনিয়নের কৃষক নজরুল ইসলাম বলেন, ধান চাষের থেকে করলা চাষে স্বল্প সময়ের অধিক মুনাফা অর্জন করা সম্ভব। তাই ধানের পাশাপাশি সবজি হিসেবে করলা চাষ করেছি।

সদর উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষ্ণ রায় জানান, উপজেলায় চলতি মৌসুমে এ পর্যন্ত ১২৪০ হেক্টর জমিতে বিভিন্ন রকমের সবজির চাষ হয়েছে। সকল প্রকার ফসলের পাশাপাশি সবজি চাষীদেরকে উপজেলা কৃষি বিভাগের পক্ষ থেকে নিয়মিত পরামর্শ ও সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে।

 

ডেইলিরূপান্তর/আরএ/এ.

  • 66
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ