মহাদেবপুরে স্বামীর পরকীয়ার সন্দেহে স্ত্রী ও ছেলের আত্মহত্যা

নওগাঁর মহাদেবপুরে স্বামীর পরকীয়ার সন্দেহে স্ত্রী ও ছেলে একসাথে গ্যাস বড়ি সেবন করে আত্মহত্যা করেছেন। বৃহস্পতিবার বিকেলে থানা পুলিশ উপজেলা সদরের হাসপাতাল মোড় কলাবাগান এলাকা থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করে। নিহতরা হলেন, ওই এলাকার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী বীরেন কুমার মন্ডলের স্ত্রী শেফালী রাণী মন্ডল (৪৮) ও তার ছেলে সুজন কুমার মন্ডল (২৭)।

বীরেন মন্ডল জানান, দুপুর ১২টায় তার স্ত্রী তাকে ফোন করে তাড়াতাড়ি বাসায় যেতে বলেন। অন্যথায় তিনি বিষ পান করবেন বলে হুমকি দেন। বাসায় ফিরে তার স্ত্রী ও ছেলেকে অসুস্থ্য অবস্থায় দেখে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। তারা গ্যাস বড়ি সেবন করেছেন বলে জানান। সেখানে তাদের অবস্থার অবনতি ঘটলে তাদেরকে নওগাঁ সদর হাসপাতালে নেয়ার পথে ছেলের মৃত্যু হয়। তার স্ত্রীকে সদর হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎস তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এলাকাবাসী ও থানা পুলিশ জানায়, দীর্ঘদিন ধরে বীরেন মন্ডল পরকীয়ায় জড়িত থাকতে পারে বলে তাদের ধারনা। এরআগে এ বিষয়ে তাকে মোটা অংকের জরিমানাও গুণতে হয়েছে। পরকীয়ার জেরেই এই আত্মহত্যা সংঘটিত হয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। প্রায় এক যুগ আগে ছেলে সুজন মোটরসাইকেল দূর্ঘটনায় আহত হলে তখন থেকে তার মা ই তাকে তুলে খাওয়াতেন। ধারনা করা হচ্ছে যে, তার মা নিজে গ্যাস বাড়ি সেবন করে তার ছেলেকেও সেবন করান।

মহাদেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আজম উদ্দিন মাহমুদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তিনি জানান, এব্যাপারে থানায় ইউডি মামলা দায়ের করা হবে।

 

ডেইলিরূপান্তর/আরএ/কে.

  • 20
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ