মা’কে বাঁচাতে নিজের জীবন দিলেন ছেলে পবিত্র 

নিজের গর্ভধারিণী মা’কে বাঁচাতে গিয়ে নিজেই বিদ্যূৎস্পৃষ্ট হয়ে পবিত্র চন্দ্র বর্মন (১৪) নামে এক কিশোরের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। শনিবার (৪সেপ্টেম্বর) বিকেলে ঠাকুরগাঁওয়ের রুহিয়া থানার ঢোলারহাট ইউনিয়নের ধর্মপুর ডাঙ্গাপাড়া গ্রামে এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে ।

মৃত পবিত্র চন্দ্র বর্মন রুহিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণীর ছাত্র এবং রুহিয়া ইউপির মধুপুর মাস্টার পাড়া গ্রামের বাসুদেব চন্দ্র বর্মনের ছেলে ।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, শনিবার বিকেলের দিকে মধুপুর গ্রামের বাসুদেব চন্দ্র বর্মনের স্ত্রী মিনারানী রায় ছেলে পবিত্র চন্দ্র বর্মনকে সঙ্গে নিয়ে ধর্মপুর ডাঙ্গাপাড়া গ্রামে তার বাবা স্বাধীন মাষ্টারের বাড়িতে বেড়াতে যায়। পবিত্র বর্মন ঘরে তার মামার সঙ্গে খেলা করার সময় বৈদ্যুতিক সিলিং ফ্যান চালিয়ে দেয়। ফ্যানটি ওপর থেকে নীচে পড়ে যায়। ছেলে পবিত্র তার মায়ের উপর থেকে ছিড়ে পড়া ফ্যান সরাতে গেলে নিজেই  বৈদ্যুতিক তারে জড়িয়ে যায়। সময় কিশোর পবিত্র তার মাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিতেই সে বৈদ্যুতিক তারে জড়িয়ে যায় এবং ঘটনাস্থলে তার মৃত্যূ হয়। পবিত্র এর লাশ তার নানার বাড়ি হতে নিজ বাড়িতে নিয়ে এনে তার শেষকৃত্য সম্পন্ন করা হয়।

৮ম শ্রেণীর ছাত্র বিদ্যূৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢোলারহাট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সীমান্ত কুমার বর্মন নির্মল।

 

ডেইলিরূপান্তর/আরএ/এ.

  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ