শ্রীনগরে কিশোর বলাৎকারের অভিযোগে থানায় মামলা

মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে সপ্তম শ্রেনীতে পড়ুয়া ১২ বছরের এক কিশোরকে বলাৎকারের অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে।

সোমবার(৩০ আগষ্ট) সন্ধ্যা সোয়া ৬ টার দিকে উপজেলার বাড়ৈখালী ইউনিয়েনের পশ্চিম মদনখালী কালাইমারা এলাকায় এ বলাৎকারের ঘটনা ঘটে।

স্হানীয়রা ঐ কিশোরকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করেন। এব্যাপারে বলাৎকারে স্বীকার হওয়া কিশোর মোরসালিন(১২) এর মা নিলুফা বেগম বাদী হয়ে একই এলাকার হৃদয়(২০)কে বিবাদী করে থানায় অভিযোগ দিলে শ্রীনগর থানার মামলা নং-৩০(০৮)২১ ধারা-নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০(সংশোধনী/০৩) এর ৯(১) রুজু হয়। হৃদয়(২০) উপজেলার বাড়ৈখালী ইউনিয়েনের পশ্চিম মদনখালী কালাইমারা এলাকার ফরহাদ হোসেনের ছেলে।

মামলার রেকর্ডের পর থেকেই বিবাদী হৃদয় পলাতক রয়েছে। পুলিশ ও কিশোরের পরিবার সূত্রে জানা যায়, ঘটনার দিন সপ্তম শ্রেনীতে পড়ুয়া ঐ কিশোর মোরসালিন(১২) বাড়ীর পাশে মদনখালী জামে মসজিদের পিছনে বালু ফেলানো রাস্তায় ক্রিকেট খেলতে যায়। এসময় একই এলাকার বিবাদী হৃদয়(২০) মোরসালিনকে মসজিদের পশ্চিম দিকে মসজিদের টয়লেটে যাওয়ার রাস্তার ফাকা জায়গায় ডেকে নিয়ে তাকে ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলে দেয় এবং কিশোরের পরনে প্যান্ট খুলে তার ই”ছার বিরুদ্ধে পায়ুপথে ধর্ষণ করে।কিশোর মোরসালিন বাড়ীতে গিয়ে ঘটনাটি তার পিতামাতাসহ আত্বীয় স্বজনদের জানায় এবং তার পায়ুপথ দিয়ে রক্ত বের হতে দেখে তাকে চিকিৎসার জন্য দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়।

এব্যাপারে শ্রীনগর থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক(এসআই) আজিজুল হক ভূইয়ার কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ঘটনার ব্যাপারে কিশোরের মা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। ঘটনার পর থেকেই আসামী হৃদয় পলাতক রয়েছে। আসামীকে গ্রেফতারের জন্য জোর চেষ্টা অব্যাহত আছে।

ডেইলিরুপান্তর/আবির

  • 53
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ