ঝিনাইগাতীতে থ্যালাসেমিয়া রোগে আক্রান্ত রাব্বীকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করলেন জেলা প্রশাসক

থ্যালাসেমিয়া রোগে আক্রান্ত শেরপুরের ঝিনাইগাতীর ৭ম শ্রেনীর ছাত্র রাব্বী (১৫) বাঁচতে চায়। এই বিষয়ে শেরপুর গ্রামবাংলা ডটকম সহ বিভিন্ন পত্র- পত্রিকায় ফলাও করে সংবাদ প্রকাশ হয়। প্রকাশিত সংবাদটি শেরপুরের জেলা প্রশাসক মো. মোমিনুর রশীদ এর নজরে এলে সাংবাদিক মুহাম্মদ আবু হেলাল এর সাথে কথা হয় জেলা প্রশাসকের।

জেলা প্রশাসকের কথানুযায়ী ১ সেপ্টেম্বর বুধবার সকালে অসুস্থ্য রাব্বী ও তার মা রেহানা বেগম হাজির হন জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে। জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ রোগী রাব্বী ও তার মার সাথে রোগ বিষয়ে খোঁজ-খবর নেওয়া সহ রাব্বীর চিকিৎসার সামান্যতম সহযোগীতা হিসেবে নগদ ১০ হাজার টাকা প্রদান করেন। জেলা প্রশাসকের এমন মহানুভবতায় আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন অসুস্থ্য রাব্বী ও তার মা রেহানা বেগম। তারা উভয়েই জেলা প্রশাসকের প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

উল্লেখ্য যে, রাব্বী স্থানীয় আইডিয়াল স্কুলের ৭ম শ্রেনীর ছাত্র এবং উপজেলার প্রতাবনগর গ্রামের কাঠ মিস্ত্রি মো. ফারুক মিয়ার ছেলে। সে জন্মের ৩ বছর পর থেকেই

থ্যালাসেমিয়া রোগে আক্রান্ত। তাকে সুস্থ করতে বিদেশ নিয়ে অপারেশন করাতে হবে। তার আগে প্রতি মাসে ১ ব্যাগ করে এ- পজেটিভ রক্ত ভরতে হচ্ছে।  রাব্বীর অপারেশন করতে কয়েক লক্ষ টাকার প্রয়োজন, যাহা রাব্বীর গরীব বাবা- মায়ের পক্ষে যোগান দেওয়া সম্ভব নয়।

যদি কোন হৃদয়বান ব্যক্তি রাব্বীকে সাহায্য করতে চান তবে রাব্বীর মাতা মোছা. রেহানা বেগমের  ০১৯১৬-৮৩৪৯৫৭ নম্বরে যোগাযোগ করতে অনুরোধ করেছেন।

 

ডেইলিরূপান্তর/আরএ/এস.

  • 23
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ