দৈ‌নিক আ‌লো‌কিত সি‌লেট এর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকের দায়িত্বে আবু তা‌লেব মুরাদ

সিলেটের বিশিষ্ট সাংবাদিক আবু তালেব মুরাদ দৈনিক আলোকিত সিলেট এর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক হিসেবে যোগদান করেছেন। পত্রিকা কর্তৃপক্ষ তাঁকে এ পদে দায়িত্ব দিয়েছেন। বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারের অধিকারী এই সাংবাদিক ইতোমধ্যে সিলেটের বিভিন্ন গণমাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন।

সিলেট শহরের কুয়ারপার এলাকার বাসিন্দা আবু তালেব মুরাদ। তাঁর  পিতা মরহুম মোহাম্মদ খলিল উল্লাহ ছিলেন উইভিং সুপারেন্টটেন্ট একজন সরকারি কর্মকর্তা, মাতা মোসাম্মৎ তাহেরা খাতুন। ৪ ভাই  ও ৩ বোনের মধ্যে তিনি সবার ছোট। সিলেট সরকারি পাইলট স্কুলের স্কুল জীবন শেষ করে কলেজ জীবন মদনমোহন কলেজে সম্পন্ন করেন। ১৯৭৮-৭৯ সালে কলেজের ছাত্র সংসদ নির্বাচনে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হন। ১৯৭৭ সালে পড়ালেখার পাশাপাশি শুরু করেন সাংবাদিকতা এবং পত্রিকায় লেখালেখি, ঠিক একই সালে আবু তালেব মুরাদ তৎকালীন রেডিও বাংলাদেশ সিলেট কেন্দ্রের অনুষ্ঠান ঘোষক হিসেবে যোগদান করেন। ১৯৭৯ সালে বেতারে জনসংখ্যা কার্যক্রম প্রযোজিত অনুষ্ঠান “এসো ঘর বাধি”র গ্রন্থনা ও উপস্থাপনার দায়িত্ব পান তিনি। ১৯৮০ সালে রেডিও নিউজরীল “চলন্তিকা”অনুষ্ঠানের প্রযোজনা সহকারী এবং ১৯৮৪ সালে উক্ত অনুষ্ঠানের গ্রন্থনা ও প্রযোজনার দায়িত্বপ্রাপ্ত হন।

১৯৮৯ ইংরেজি সনে জীবিকার তাগিদে ইউ এ ই তে পাড়ি জমান, সেখানে তিনি দেশ থেকে প্রকাশিত দৈনিক খবর এবং সাপ্তাহিক চিত্রবাংলার সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ইউ এ ই তে দীর্ঘ ১৩ বছর অবস্থানের পর ২০০২ সালে পরিবার-পরিজন নিয়ে ইউকের মিডিয়া ব্যক্তিত্ব মিসবাহ জামালের অনুরোধে যুক্তরাজ্য চলে যান।

আবু তালেব মুরাদ লন্ডনে অবস্থানকালে সানরাইজ রেডিও ইউকে এবং সাপ্তাহিক নতুনদিন পত্রিকায় কাজ করেন।

২০০২ সালের শেষের দিকে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রথম নির্বাচনের প্রাক্কালে দেশে চলে আসেন। তখন সানরাইজ রেডিও ইউকে বাংলাদেশ ব্যুরো প্রধানসহ আবু তালেব মুরাদ এবং প্রবাসী সাংবাদিক নজরুল ইসলাম বাসন মিলে লন্ডন থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক “পত্রিকায়” সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের প্রার্থীদের সাক্ষাৎকার সহ বিভিন্ন সংবাদ প্রেরণ করেন।এছাড়াও দৈনিক সিলেট সুরমার বিশেষ প্রতিনিধি এবং লন্ডন থেকে প্রকাশিত বহুল প্রচারিত বাংলাটাইমস পত্রিকায় দীর্ঘদিন সিলেট ব্যুরো প্রধানের দায়িত্বে ছিলেন।২০১৮ তে তিনি বাংলা টিভি সিলেট ব্যুরো প্রধানের দায়িত্ব প্রাপ্ত হন। বর্তমানে তিনি তাঁর  নিজস্ব মিডিয়া “সিলকন মিডিয়ার” এমডি সহ রাষ্ট্রীয় প্রচার মাধ্যম বাংলাদেশ বেতার সিলেট কেন্দ্রের অনুষ্ঠান তত্ত্বাবধায়ক (ডিউটি অফিসার) এর দায়িত্বে আছেন এবং লন্ডনস্থ স্পেকট্রাম রেডিওর বাংলাদেশ ব্যুরো প্রধানের দায়িত্ব সহ সংবাদ পাঠ করেন।

আবু তালেব মুরাদ সাংবাদিকতার পাশাপাশি সমাজ সেবামূলক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত আছেন। তিনি ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন সিলেটের পাবলিসিটি সেক্রেটারি, ঢাকা ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ এর আজীবন সদস্য, সিলেট ডায়াবেটিক সমিতি, লায়েন্স চিলড্রেন হসপিটাল এর আজীবন সদস্য ।এছাড়াও রিসিল্ভ টু সেইভ লাইফ ইউএসএ এর আর্থিক সহায়তায়, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহযোগিতা এবং ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ সার্বিক তত্বাবধানে সিলেটের ৩৭ টি উপজেলা সহ দেশের যে ৫৪ টি উপজেলায়, উচ্চ রক্তচাপের রোগীদের ফ্রি-চিকিৎসা এবং সার্বক্ষণিক ফ্রি মেডিসিন প্রদান করা হচ্ছে, এই প্রকল্পের কো-অর্ডিনেটর এর দায়িত্বে আছেন তিনি।

এক ছেলে আবির মোঃ মুমিত, মেয়ে আদিবা মাইসা যার জন্ম আবুধাবিতে এবং স্ত্রী সৈয়দা আফসানা মুক্তিকে নিয়ে তাঁর সংসার।

 

ডেইলিরূপান্তর/আরএ/ডি.

  • 60
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ