পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্পের আওতায় অধিগ্রহনকৃত জমি ও স্থাপনার ক্ষতিপূরণ না পেয়ে নড়াইলে মানববন্ধন

“পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্পের” আওতায় নড়াইলের তুলারামপুর এলাকায় অর্ধশত পরিবার অধিগ্রহনকৃত জমি ও জমির ওপর নির্মিত স্থাপনার ক্ষতিপূরণ না পেয়ে কাজ বন্ধ করে মানববন্ধন করেছেন । আজ সকাল ১০ টায় সদর উুপজেলার তুলারামপুর ইউনিয়নের তুলারামপুুর ব্রীজের পশ্চিম পাশে এ এ মানববন্ধন করেন । পরে খবর পেয়ে জেলা প্রশাসনের পক্ষে ভ’মি অধিগ্রহন কর্মকর্তা যেয়ে সূষ্ঠু সমাধান করার আশ্বাস দিয়ে আলোচনার জন্য জেলা প্রশাসকের কার্য্যালয়ে নিয়ে আসন।

মানববন্ধনে বক্তব্যের মধ্যে তুলারামপুর গ্রামের ভূক্তভোগি নিউটন শেখ জানান, তার বংশের ৫টি পরিবার এখনও জমি এবং স্থাপনার মূল্য পায়নি। জেলা প্রশাসনের ভূমি অধিগ্রহন শাখায় গেলে অফিসের দুজন রিয়াজ ও সিরাজ আজ না কাল, কাল না পরশু এভাবে ঘোরাচ্ছে। কিন্তু একই মৌজার ১৬৯৬ দাগের মামুন মোল্যা ও হায়দার আলী তাদের জমি ও স্থাপনার ক্ষতিপূরণ ঠিকই পেয়েছেন। আমরা রহস্যজনক কারনে আমাদের ক্ষতিপূরণ পাচ্ছি না।

মানববন্ধনে বক্তব্যের মধ্যে বাবুল জানায় প্রায় ৩ বছর তুলারামপুর মৌজায় অবস্থিত জমি এবং স্থাপনার মূল্য নির্ধারণ করা হলেও এখনও ক্ষতিপূরণ পাননি। এ নিয়ে আমরা গতকাল ও জেলা প্রশাসকের কাছে গিয়েছি কিন্তু তিনি কোন সমাধান করেননি।

উল্লেথ্য, “পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্পের” আওতায় ঢাকা-নড়াইল-যশোর রেল লাইনে নড়াইল অংশে ২২কিঃমিটার লাইনের কাজ শুরু হয়েছে। এরই অংশ হিসেবে জেলা প্রশাসকের ভূমি অধিগ্রহন শাখা সদর ও লোহাগড়া উপজেলার বিভিন্ন মৌজার জমির সাথে সদরের ৭৯নং তুলারামপুর মৌজায় অবস্থিত অর্ধশত বাস্তুভিটা ও বাড়ি এবং ধানি জমির মূল্য ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর মাসে নির্ধারণ করা হয়। এ সময় বেশ কিছু ক্ষতিগ্রস্থ জমির মালিক তাদের স্থাপনার নির্মাণ ব্যয় জেলা প্রশাসকের কাছে পূনরায় মূল্যায়নের আবেদন করলে নড়াইল গণপূর্ত বিভাগ কর্তৃপক্ষ গত বছরের (২০২০) ৫ মার্চ যাচাই-বাছাই করে পূনরায় মূল্য নির্ধারণ করে ১৯আগস্ট এক প্রতিবেদন দেন। কিন্তু এতোদিন অতিবাহিত হলেও এসব পরিবার অধিগ্রহনকৃত জমি এবং জমির ওপর নির্মিত স্থাপনার ক্ষতিপূরণ পাননি।

এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান বলেন, ভূক্তভোগিরা যাতে তাদের সঠিক ক্ষতিপূরণ পেতে পারেন সে জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া জন্য আলোচনা হচ্ছে।

ডেইলিরুপান্তর/আবির

  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ