ঠাকুরগাঁওয়ে চব্বিশ ঘন্টার মধ্যে জামিনে মুক্ত সেই প্রতিবাদি ইউপি সদস্য রুবি

আশ্রায়ন প্রকল্পের ঘর বরাদ্দ নিয়ে ঠাকুরগাঁও চিলারং ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্যর বিরুদ্ধে অর্থ লেনদেনের অভিযোগ তুলে ফেঁসে যাওয়া প্রতিবাদী নারী ইউপি সদস্য ও ইউনিয়ন মহিলা আ’লীগের সভাপতি রুবি আক্তার জামিনে মুক্ত হয়েছেন। আজ সোমবার বিকেলে জেলা কারাগার থেকে বেড়িয়ে আসলে দলের নেতাকর্মীরা তাকে ফুল দিয়ে বরণ করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন পৌর মেয়র আঞ্জুমান আরা বণ্যা, সদর উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক মোশারুল ইসলাম, জেলা মহিলা আ’লীগের সভাপতি দ্রোপদী দেবী আগরওয়ালাসহ অনেকে।

এসময় রুবি আক্তার বলেন, এলাকার অসহায় পরিবারের তিনজনকে প্রধাণমন্ত্রীর আশ্রায়ণ প্রকল্পের ঘরে তুলে থাকতে দেই। হঠাৎ চেয়ারম্যানের নির্দেশে বেশকিছু লোকজন এসে তাদের ঘর থেকে বের করে দেয়া হলে ঘটনাস্থলে পৌছাই এবং অসহায়দের কান্না দেখে বিষয়টি সহ্য করতে পারিনি। তাৎক্ষনিক স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছে প্রকল্পের ঘর বরাদ্দের নামে অর্থ লেনদেনের কথা জানিয়ে দেই। আর সেই ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে প্রকল্প সংশ্লিস্টরা ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে ফাঁসিয়েছে। আমি সত্য ঘটনা উদঘাটনে স্থানীয় প্রশাসন ও মাননীয় প্রধাণমন্ত্রীর হস্তক্ষে কামনা করছি।

জেলা মহিলা আ’লীগের সভাপতি দ্রোপদী দেবী আগরওয়ালা জানান, ইউপি সদস্য রুবি আক্তার প্রতিবাদী নারী। সে অসহায়দের উপকার করেছে। আমরা আজ তাকে ফুল দিয়ে বরণ করেছি জেলা কারাগারের সামনে থেকে। তার কোন দোষ ছিল না।

উল্লেখ্য, উল্টো ঘর দখলের অভিযোগে ইউপি সদস্য রুবি আক্তারকে গত রোববার দুপুরে সদর উপজেলার চিলারং ইউনিয়নের আলাদিহাটের ধনিবস্তি গুচ্ছগ্রাম থেকে আটক করে পুলিশ। পরে তার বিরুদ্ধে মামলা হলে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়। অন্যদিকে সদর উপজেলার চিলারং ইউনিয়নের আলাদিহাট ধনিবস্তি গুচ্ছগ্রামে ঘর বরাদ্দে সংশ্লিস্ট চেয়ারম্যান ও মেম্বার অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে এমন অভিযোগ তুলেন ওই নারী ইউপি সদস্য। এ সংক্রান্ত একটি ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পরদিন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল্লাহ আল মামুনের নেতৃত্বে ওই নারী সদস্যকে আটক করে পুলিশ।

 

ডেইলিরূপান্তর/আরএ/এম.

  • 33
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ