নোয়াখালীতে কুরআন অবমাননার দায়ে যুবক আটক

নোয়াখালী সদরের নোয়ান্নই ইউনিয়নে পবিত্র ধর্ম-গ্রন্থ আল-কুরআন অবমাননার দায়ে টোটন সাহা (৩৫) নামের এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ।

রোববার (২২ আগস্ট) বেলা ১১টার দিকে উপজেলার রামকৃষ্ণপুর গ্রাম থেকে স্থানীয় জনতা ওই যুবককে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করে। আটককৃত টোটন সাহা রামকৃষ্ণপুর গ্রামের হারাধন সাহার ছেলে।

টোটন সাহার স্ত্রী ইয়াসমিন আক্তার জানান, ২০১১ সালে তথ্য গোপন করে ইসলামি শরিয়াহ মোতাবেক তার সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন টোটন সাহা। বিয়ের এক বছর পর তিনি জানতে পারেন তার স্বামী হিন্দু ধর্মের অনুসারী। পরে স্ত্রীর ইয়াসমিনের কাছে ক্ষমা চেয়ে টোটন সাহা ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে পরিস্থিতি শান্ত করেন। কিন্তু পরবর্তীতে টোটন সাহা স্ত্রী ইয়াসমিনকে হিন্দু ধর্ম পালনে চাপ প্রয়োগ করলে শুরু হয় তাদের দাম্পত্য জীবনে কলহ। নিজ ধর্ম ইসলাম পালন করতে গিয়ে একাধিকবার স্বামীর নির্যাতনের শিকারও হন ইয়াসমিন আক্তার।

রোববার ভোর রাতে ফজর নামাজ শেষে কুরআন শরীফ পাঠ করছেন ইয়াসমিন আক্তার। এসময় কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই টোটন সাহা স্ত্রী ইয়াসমিন আক্তারের সামনে থেকে জোরপূর্বক পবিত্র ধর্মগ্রন্থ আল-কুরআন, তসবিহ ও নামাজের জায়নামাজ ছিনিয়ে নিয়ে পুকুরের পানিতে পেলে দেয়।
পরে ইয়াসমিন আক্তারের শোর-চিৎকারে স্থানীয় লোকজন গিয়ে ঘটনাস্থল থেকে অভিযুক্ত টোটন সাহাকে আটক করে সুধারাম থানায় খবর দিয়ে পুলিশে সোর্পদ করে। ইয়াসমিন আক্তার জেলার সুবর্ণচর উপজেলার আবদুল মতিনের মেয়ে।

সুধারাম মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহেদ উদ্দিন অভিযুক্ত যুবককে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, তার বিরুদ্ধে আইনি প্রক্রিয়া প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

ডেইলিরুপান্তর/আবির

  • 66
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ