সাভারের তুরাগ নদে নিখোঁজ দুই কিশোরের সন্ধান পাওয়া যায়নি

সাভারের কাউন্দিয়া এলাকায় ফুটবল খেলা শেষে তুরাগ নদে গোসল করতে নেমে দুই কিশোর নিখোঁজ হয়েছে। নিখোঁজের ১৭ ঘন্টা পেরিয়ে গেলেও এখনো সন্ধান মিলেনি তাদের। রবিবার সকাল থেকে দ্বিতীয় দিনের মত উদ্ধার অভিযান শুরু করে টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরির একটি দল।

এরআগে, শনিবার (২১ আগস্ট) সন্ধ্যার দিকে কাউন্দিয়া ইউনিয়নের তিরিশ ফিটের বালুর চর এলাকার তুরাগ নদে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ হয় তারা।

নিখোঁজ কিশোররা হলো মিরপুর শাহালি থানার সি ব্লকের আলামিনের ছেলে আলভী ও আক্তারের ছেলে রিয়াদ। তাদের বয়স ১০-১২ এর ভেতরে। তারা দুজনেই সপ্তম শ্রেনীর শিক্ষার্থী। তাদের বিস্তারিত পরিচয় জানাতে পারেনি পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয়রা বলছে, মিরপুর এলাকা থেকে ৬ জনের একটি কিশোর দল কাউন্দিয়ার সেই এলাকায় ফুটবল খেলতে আছে। খেলা শেষে নদীতে গোসল করতে নামে সবাই। এসময় কিশোর আলভী ও রিয়াদ পানিতে ডুবে নিখোঁজ হয়। পরে ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেওয়া হলে টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসের ডুবরি দল এসে উদ্ধার অভিযান শুরু করে। তবে রাত হয়ে যাওয়ায় সেদিন উদ্ধার অভিযান বন্ধ করে দেওয়া হয়। পরে রবিবার সকাল থেকে আবার উদ্ধার অভিযান শুরু করে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল।

নিখোঁজ আলভীর বাবা আলামিন বলেন, শনিবার আমার ছেলে এখানে এসে নাকি ডুবে নিখোঁজ হয়, আমি এসেছিলাম। আজ সকালেও এসেছি। কিন্তু ফায়ার সার্ভিসের কোনো গুরুত্বই দেখি না৷ তারা সকাল ৭টায় আসার কথা ৯টা বাজে এসেছে। আর একজন ডুবুরি দিয়ে সন্ধান চালাচ্ছে আরও ডুবুরি বাড়ানো উচিৎ।

টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দলের প্রধান আব্দুল জলিল বলেন, যেখানে সেই কিশোররা নিখোঁজ হয়েছে সেখানে পানির স্রোত বেশি। এখন পর্যন্ত তাদের খোঁজ পাওয়া যায়নি। আমরা শনিবার এসেছিলাম। রাত হয়ে যাওয়ায় আজ সকাল থেকে উদ্ধার অভিযান করছি। আমরা ডুবুরি দলের মোট চারজন উদ্ধার অভিযানে কাজ করছি। স্থানীয় প্রশাসন আমাদের সাথে সহয়তা করছে। উদ্ধার না হওয়া পর্যন্ত অভিযান অব্যহত থাকবে।

এ বিষয়ে কাউন্দিয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (এসআই) শাহ আলম বলেন, রবিবার সকাল থেকেই উদ্ধার অভিযান চলছে৷ স্প্রিডবোড দিয়ে বিভিন্ন স্থানে পানিতে নেমে ডুবুরিরা কাজ করছে৷ আমরা তাদের কাজে সহায়তা করছি।

ডেইলিরুপান্তর/আবির

  • 288
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ