মাদারীপুরে গাড়ির উপর বর্ধিত আয়কর রহিতকরণের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন 

গাড়ির মালিকদের ওপর প্রতিবছরই কর বাড়ছে।গাড়ি কেনার সময় বিপুল পরিমান আমদানিশুল্কসহ অন্যান্য কর পরিশোধ করার পরও প্রতিবছর এভাবে কর বৃদ্ধি পেতে পেতে তা এখন অসহনীয় পর্যায়ে দাঁড়িয়েছে। করোনার এই দুঃসময়ে মানুষের আয় কমে যাওয়ায় পরিস্থিতি আরো জটিল হয়ে পরেছে। এমতাবস্তায় কারো সাথে আলোচনা না করে ২০২০-২১ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে গাড়ি ব্যবহারের ক্ষেত্রে আয়কর ও নিবন্ধনসহ বিআরটিএ প্রদত্ত বিভিন্ন ফির ওপর সম্পূরক শুল্ক বাড়ানো হয়। এই অস্বাভাবিক হাঁরে গাড়ির আয়কর বাড়ানোর প্রতিবাদ ও পূর্বের আয়কর বহাল রাখার দাবিতে মাদারীপুরে যৌথ সাংবাদিক সম্মেলন করেছে জেলা সড়ক পরিবহন বাস মালিক সিমিতি ও জেলা বাস মালিক গ্রুপের নেতৃবৃন্দরা। রোববার(০১ আগস্ট)বেলা ১২টায় শহরের পুরাতন বাসস্ট্যান্ড জেলা বাস ও মিনিবাস সমিতির অফিস কার্যালয়ে এ সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সাংবাদিক সম্মেলনে পরিহবন ও বাস মালিক সমিতির ব্যবসায়ীরা জানান , ২০২০ সালের মার্চ মাস হতে এই অবধি সরকারের নির্দেশ মোতাবেক করোনা মহামারি বন্যা ইত্যাদি সত্যেও ১৮৩ দিন গাড়ি চলাচল বন্ধ ছিল। এছাড়া সরকারের নির্দেশ মোতাবেক ৬০% বর্ধিত ভাড়া নিয়ে অর্ধেক যাত্রী বহন করে কোনমতে পরিবহন চালু রাখি।কিন্তু এই ১ বছর ৪ মাসে গাড়ির ব্যাংকের ঋণ পরিশোধ করতে পারি নাই।অথচ আমাদের গাড়ির ট্যাক্স,ফিটনেস,রুট পারমিট,ইন্সুরেন্স, ভ্যাট,আয়কর শতভাগ পরিশোধ করতে হচ্ছে।

এছাড়া রাস্তার চাঁদা, ড্রাইভার, সুপারভাইজার ও হেলপারদের সম্পূর্ণ বেতনের টাকা সাথে সাথেই পরিশোধ করতে হয়। তারা বলেন, এই দুঃসময়ে পরিবহন ও গাড়ীর মালিকদের সাথে কোন রকম আলাপ আলোচনা না করেই হঠাৎ করেই গাড়ির ইনকাম ট্যাক্স চলতি বছরের ২০২১ সালের ১লা জুলাই থেকে যে সমস্ত গাড়ি নতুন অর্থাৎ ১০ বছর অতিক্রম করে নাই তাদের ৯ হাজার টাকার পরিবর্তে ১৬ হাজার ৫’শ টাকা অর্থাৎ অতিরিক্ত ৭ হাজার ৫’শ টাকা আয়কর পরিশোধ করতে হচ্ছে এবং যে সমস্ত গাড়ি ১০ বছর অতিক্রম করেছে তাদের ৪ হাজার ৫’শ টাকার পরিবর্তে ২১ হাজার টাকা অতিরিক্ত ২৫ হাজার ৫’শ টাকা আয়কর পরিশোধ করতে হচ্ছে। এসময় তারা পরিবহন শিল্পকে বাঁচানোর জন্য তীব্র প্রতিবাদ ও ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

এসময় ব্যবসায়ীরা দাবি করে বলেন, ২০২১ সালের জুন মাস পর্যন্ত যে আয়কর পরিবহন ও বাস মালিকবৃন্দ পরিশোধ করে আসছিলেন সেটাই যেন বহাল থাকে তার জন্য আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আকুল আবেদন জানাচ্ছি।

সাংবাদিক সম্মেলনে মাদারীপুর সড়ক পরিবহন বাস মালিক সমিতির সভাপতি খন্দকার কামরুল হোসেন তুষু, সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান খান, মাদারীপুর জেলা বাস ও মিনিবাস মালিক গ্রুপের সভাপতি আবঃ সালাম তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক মোঃ মফিজুর রহমান বক্তব্য রাখেন।এসময় মাদারীপুর সড়ক পরিবহন বাস মালিক সমিতি ও জেলা বাস ও মিনিবাস মালিক সমিতির অন্যান্য নেতৃবৃন্দসহ জেলার প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

ডেইলিরূপান্তর/আরএ

  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ