বাবার স্বপ্নটাকে বাস্তবায়ন করতে চাই: প্রধানমন্ত্রী

শোকাবহ ১৫ আগস্টের স্মৃতি রোমন্থন করে আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘বাবা-মা, ভাই সব হারিয়েছি। তবুও একটা আদর্শকে ধারণ করেই পথ চলি। এটাই আমার শক্তি। যে স্বপ্নটা আমার বাবা দেখেছিলেন, ছোটবেলা থেকে তার মুখে যে কথাগুলো শুনেছি, সেটাকে আমার বাস্তবায়ন করতে হবে। এর বাইরে আর কোনো চাওয়া-পাওয়া নেই।’

রোববার জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে কৃষক লীগ আয়োজিত স্বেচ্ছায় রক্ত ও প্লাজমা দান কর্মসূচির উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে যুক্ত হন। অপরদিকে, গুলিস্তান আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে কৃষক লীগের সভাপতি সমীর চন্দের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তৃতা করেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, জাহাঙ্গীর কবির নানক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম, কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক উম্মে কুলসুম স্মৃতি প্রমুখ।

শেখ হাসিনা বলেন, শুধু বাংলাদেশের মানুষের মুখে হাসি দেখতে চাই, বাংলাদেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন দেখতে চাই। বাংলাদেশ ক্ষুধা-দারিদ্র থেকে মুক্তি পেয়ে উন্নত সমৃদ্ধ জাতি হিসাবে গড়ে উঠবে, বিশ্ব দরবারে মাথা উচুঁ করে চলবে, মর্যাদা নিয়ে চলবে, সন্মানের সঙ্গে চলবে আমরা বিজয়ী জাতি, বিজয়ী জাতি হিসাবে বিশ্বে মাথা উঁচু করে চলব এটাই আমার চাওয়া।’

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে বঙ্গবন্ধুকন্যা বলেন, বাংলাদেশের মানুষের ওপর আমার বাবার অঘাত বিশ্বাস ছিল। তিনি সব সময় বিশ্বাস করতেন, বাঙালি কখনো তার গায়ে হাত দিতে পারবে না। আর পাকিস্তানিরা যখন চেষ্টা করেও হত্যা করতে পারেনি, বাঙালিরা কেন তাকে মারবে? অনেকেই অনেকভাবে খবর দিয়েছেন বা বলার চেষ্টা করেছেন কিন্তু তিনি কখনও তা বিশ্বাস করেননি।

তিনি আরও বলেন, যখনই কোনো রাষ্ট্রপ্রধান বা সরকারপ্রধান বলেছেন- তখনই তিনি পাল্টা জবাবে বলেছেন- এরা আমার সন্তানের মতো, ওরা কেন আমাকে মারবে? আর সেই বিশ্বাসের চরম আঘাত দিল যেন। তাকে নির্মমভাবে হত্যা করল।

ডেইলিরুপান্তর/আবির

  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ