মহাদেবপুরে প্রতিবন্ধী কিশোরকে হাত-পা বেঁধে মারপিট : নির্যাতনকারী আটক

নওগাঁর মহাদেবপুরে একটি মোবাইলফোনের সিম চুরির কথিত অভিযোগে শিহাব হোসেন (১৪) নামে এক মানষিক প্রতিবন্ধী কিশোরকে ধরে হাত-পা বেঁধে পাম্পের একটি ঘরে আটকে রেখে মধ্যযুগীয় কায়দায় লাঠি দিয়ে বেদম প্রহার করা হয়েছে। সে উপজেলার ভীমপুর ইউনিয়নের বাগাচারা গ্রামের খোরশেদ আলমের ছেলে। এই ঘটনা জানাজানি হলে গ্রামবাসী বকুল হোসেনকে (৫০) আটক করে উত্তম মধ্যম দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে। আটক বকুল বাগাচারা এলাকায় নির্মাণাধীণ অটোগ্যাস স্টেশনের নৈশপ্রহরী ও শিকারপুর গ্রামের মৃত তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে।

নির্যাতনের শিকার কিশোর শিহাব হোসেনের পিতা জানান, সকাল ১০টায় শিহাব ওই পাম্প এলাকায় গেলে মোবাইলের সিম চুরি হয়েছে বলে বকুল ও কয়েকজন নির্মাণশ্রমিক তাকে ধরে নিয়ে গিয়ে পাম্পের একটি ঘরে আটকে রেখে হাত-পা বেঁধে মারপিট করে। তার চিৎকারে গ্রামের লোকজন ছুটে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে ও নির্যাতনকারী বকুলকে আটক করে। মারপিটের ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এতে দেখা যায় তাকে কিভাবে অমানুষিক নির্যাতন করা হচ্ছে। মারাত্মক আহত শিহাবকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়েছে।

মহাদেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জের দায়িত্বে থাকা ইন্সপেক্টর (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ জানান, এ ব্যাপারে সন্ধ্যায় শিহাবের পিতা বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

 

 

ডেইলিরূপান্তর/আরএ.

  • 411
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ