করোনাভাইরাস ঝুঁকিতে চা-শ্রমিক জনগোষ্ঠী

মৌলভীবাজারে বেড়েই চলেছে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ। সঙ্গে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যা। থেমে নেই চা বাগান গুলোতে হানা দিতে করোনাভাইরাস। ঝুঁকিতে আছে চা-শ্রমিকরা। দিনদিন চা বাগান গুলোতে করোনা আক্রান্ত রোগীর হাড় বেড়েই চলেছে।

শ্রীমঙ্গলের মাজদি, সোনাছড়া, ভুড়ভুড়িয়া, আমরাইল, হুগলি, বৌলাছড়া চা বাগান সহ প্রায় চা বাগান গুলোতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। কঠোর লকডাউন ২৩ জুলাই থেকে আগস্ট ৫ তারিখ সময় পর্যন্ত সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হলেও চা বাগানে চা শ্রমিকদের কাজ অব্যাহত রয়েছে । চা বাগেনে নেই কোনো বিধিনিষেধ সবাই দলবেঁধে ঝুঁকিতে কাজ করছেন চা-শ্রমিকরা।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, কর্মরত অবস্থায় কারো মুখে মাস্ক নেই, কেউ দূরত্ব বজায় মানছে না, মানছে না বিধিনিষেধ। শ্রীমগল উপজেলার ভাড়াউড়া চা বাগানের চা-শ্রমিক শিলা রিকয়াশন বলেন, চা বাগান যেহেতু খোলা রয়েছে আমাদেরকে কাজ করতে হবে যদি কাজ না করি তাহলে মজুরি পাব না আর মজুরি না পেলে খাবার টাকা জুটবে না। নাম প্রকাশের অনিচ্ছুক জানান, সন্ধ্যা হলেই চা বাগানে জমজমে শুরু হয় মাদকের ব্যবসা বহিরারাগত লোক এসে আড্ডা দেয়,যার প্রভাব বাগানে করোনাভাইরাসের আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা থেকে যায়।

ডেইলিরূপান্তর/আরএ

  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ