জৈন্তাপুরে করোনার ভয়াল থাবা, প্রতি ২জনে ১জন করোনা পজিটিভ

সিলেটের জৈন্তাপুরে করোনা উপসর্গ ও আক্রান্তের সংখ্যা দিনদিন বাড়ছে।সরকার ঘোষিত লকডাউন অমান্য করে হুদাই হাট বাজারে ভিড় জটলা করছেন উৎসুক জনতা।স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে না অনেকেই। পবিত্র ঈদুল আযহার সরকার ঘোষিত নির্দেশনা গুলো গ্রামের মসজিদ গুলোতে কমিটির দায়িত্বশীল ব্যক্তিবর্গ জানায় নি সাধারণ মুসল্লীদের।

 

সরকারের যথাযথ কর্তৃপক্ষ ইমামদের অবহিত করলেও এর কোনো তোয়াক্কা তারা করছেন না। উল্টা মাস্ক পরে মসজিদে গেলে নানা হয়রানীর শিকার হতে হয়। উপজেলা প্রশাসন বারবার মোবালই কোর্টের মাধ্যমে দন্ড দিয়েও মানুষকে নিয়ন্ত্রন করতে হিমসিম খাচ্ছে বরাবরের মতো ।অবস্থা এমন করোনা ও করোনার ভয়াবহতা বিশ্বাসই করছে না সাধারণ মানুষ।

 

এখনো তারা মনে করে এটা রাজনীতি। গত দুইদিনে জৈন্তাপুর উপজেলায় ৩১ জনের মধ্যে ১৬ জন করোনা পজেটিভ সনাক্ত হয়এবং ১ জনের মৃত্যু হয়।জৈন্তাপুর উপজেলা সদর হাসপাতালে করোনা উপসর্গ রোগীদের আনাগোনা বৃদ্ধি পেয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার -পরিকল্পনা কর্মকর্তার অফিস সূত্রে জানা যায়, সিলেটে জৈন্তাপুর উপজেলায় বিভিন্ন সরকারি দপ্তরগুলিতে কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বেড়ে যাওয়ায় নতুন করে উপজেলায় অবস্থানকারী সকল দপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারী ও সাধারণ নাগরিকসসহ নতুন করে ১৬ জনের করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

 

এ দিকে জৈন্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ আমিনুল ইসলাম সরকার করোনা পজিটিভ সনাক্ত হন।গত কয়েকদিনে তাঁর সংস্পর্শে আসা অনেক রোগির করোনা আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। মুক্তিযুদ্ধা সন্তান শামীম আহমদ গত কয়েকদিন ধরে জ্বর সর্দিতে ভোগছিলেন ,টেষ্টে তাঁর করোনা পজিটিভ সনাক্ত হয়। জৈন্তাপুর উপজেলার নিজপাট ইউনিয়নের সদস্য আলহাজ্জ্ব ফয়জুল হোসেন (৬০) ঈদের আগে হতে জ্বর-সর্দিতে ভোগছিলেন।

 

ডাক্তারের পরামর্শ ছিল করোনা টেস্ট করাতে। তিনি টেষ্ট করান নি।গতকাল শনিবার তাঁর স্বাসকষ্ট বেড়ে গেলে রাতেই তিনি সিলেট শহীদ শামছুদ্দীন হাসপাতালে যান এবং সেখানেই তিনি অক্সিজেন সাপোর্ট না পেয়ে আজ রোববার দুপুরে মৃত্যুবরন করেন।তিনি বর্তমান জৈন্তাপুর ১ নং নিজপাট ইউনিয়নের সদস্য ও সারীঘাট উচ্চ বিদ্যালয়ের গভর্নিং বডির সদস্য বলে জানা যায়।

 

জৈন্তাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুসরাত আজমেরী হক বলেন, বর্তমান লকডাউনে উপজেলা প্রশাসনের সকল কার্যক্রম অব্যাহত আছে।জৈন্তাপুরে করোনা আক্রান্তদের কোয়ারেন্টিন থাকতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।অসহায় ও দু:স্থদের খাদ্য সহায়তা(৩৩৩) নিয়ে মাঠে আছেন প্রশাসনের বিশেষ টিম।

  • 133
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ