শ্রীনগরে ঈদের দিনে কোরবানী গোস্তের হাট

প্রতি বছরের মত এবারও মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে বসছে কোরবানী গোস্তের হাট।
কোরবানী ঈদের দিন উপজেলার চকবাজার ব্রীজে বসে এ কোরবানী গোস্তের হাট।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, প্রতি বছর যারা পবিত্র ঈদ-উল আযহাতে কোরবানী দিতে পারেন নাই এবং অনেকেই কোরবানী দিয়েও কোরবানীর সমস্ত গোস্ত আত্নীয় স্বজনদের মধ্যে বিলিয়ে দিয়েছে এরকম কয়েক হাজার নারী পুরুষ এ হাট থেকে গোস্ত ক্রয় নিয়ে যাচ্ছে। প্রতি কেজি কোরবানী গোস্ত ৫শত টাকা ধরে বিক্রি হয় এ হাটে ।  চুন্নু নামে একজন দেখে যায় সে ডিজিটাল মিটার দিয়ে গোস্ত মেপে দিয়ে গোস্ত বিক্রি করতে আসা ব্যক্তির থেকে প্রতি কেজিতে ১০ টাকা করে নেন।

বালাশুর বাগানবাড়ী থেকে কোরবানীর গোস্ত বিক্রি করতে আসা মোহাম্মদ আলী(৪৮) জানান, আমি গরীব মানুষ কোরবানী দেয়ার মত সামর্থ নাই। আমার এলাকায় বাড়ী বাড়ী ঘুরে ঘুরে ৪ কেজি গোস্ত পেয়ে এ হাটে এনে ৫শত ধরে বিক্রি করে ২ হাজার টাকা পাইছি।

লৌহজং উপজেলার গোয়ালীমান্দ্রা বেদে পল্লী এলাকা থেকে গোস্ত বিক্রি করতে আসা রাশেদা বেগম(৫৩) জানান, আমি আমার পরিবারের কয়েকজন সদস্যদের নিয়ে বাড়ী বাড়ী ঘুরে ১০ কেজি গোস্ত পাইয়া এ হাটে এনে ৫ শত টাকা কেজি বিক্রি করে ৫ হাজার টাকা পাইছি।

মথুরাপাড়া এলাকা থেকে গোস্ত ক্রয় করতে আসা দুইজন নারী জানান, করোনায় আর্থিক সামর্থের কারণে এবছর আমরা কোরবানী দিতে পারি নাই। তাই এহাট থেকে ৫ টাকা ধরে ১২ কেজি গোস্ত ক্রয় করে নিলাম।

সিংপাড়া এলাকা থেকে গোস্ত ক্রয় করতে আসা আকাশ জানান, আমরা কোরবানী দিয়ে সব গোস্ত বিলিয়ে দিয়েছি। এখন নিজেদের বাড়ীর জন্য কয়েক কেজি গোস্ত ক্রয় করে নিয়ে গেলাম।

ডেইলিরূপান্তর/আরএ

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ