প্রশাসনের নাকের ডগায় রমরমা মাদক ব্যবসা, সাংবাদিককে প্রান নাশের হুমকি

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া থানা এলাকার ১০০ গজের মধ্যে বাউশিয়া সমিতির মার্কেটে গ্লাস হার্ডওয়্যার ব্যবসার আড়ালে মাসুম বিল্লাহ নামে এক যুবক ও তার সিন্ডিকেটের পাইকারি রেটে মাদক (মরণ নেশা ইয়াবা ফেন্সিডিল) বিক্রি এখন ওপেন সিক্রেট।প্রশাসনের নাকে ডগায় বসে প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে মাদক ব্যবসায়ী চাঁদপুর জেলার মতলবের মাসুম গজারিয়ায় এখন কোটিপতি হয়েছে।

গোপন সূত্রে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে জানা যায় রাতারাতি আঙ্গুল ফুলে কলা গাছ বনে যাওয়া মাদক ব্যবসায়ী মাসুম আসন্ন গজারিয়া উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বাউশিয়া গুয়াগাছিয়া ও ইমামপুর ইউনিয়নে কতিপয় মেম্বার চেয়ারম্যান পদ প্রার্থীদের মাদক বিক্রির অর্জিত অর্থ নির্বাচনী অর্থরূপে ব্যায় করার নীতিগত সিদ্ধান্ত ও পরিকল্পনা নিয়েছে তার নিয়ন্ত্রিত মাদক গডফাদার সিন্ডিকেট।

অভিযোগ কারীদের তথ্যের ভিত্তিতে জানা যায় মতলব দক্ষিন উপজেলার ১নং পেয়ারীখোলা ইউনিয়নে গত (১০এপ্রিল) শনিবার আনুমানিক ৪ ঘটিকার সময় মাদকের টাকার জন্য আটক করে বেঁধে রাখে মাসুম বিল্লাহ ও তার সহযোগী হেদায়েতুল্লাহ কে তাদেরই দুজন মাদকের খুচরা বিক্রেতা।পরবর্তীতে মাদক ব্যবসায়ী মাসুম তার পূর্বে গ্রহন করা চুরি বিদ্যা কৌশলকে কাজে লাগিয়ে সেখান থেকে পালিয়ে এসে চার হাজার পিস ইয়াবা নিয়ে তাদের মধ্যে অন্ত-কোন্দল বিষয়টি গোপন রেখে মোটরসাইকেল উদ্ধার করার জন্য ৯৯৯ ফোন দিয়ে মতলব দক্ষিন থানার কাছে সহযোগিতা চান মাসুম।পরবর্তীতে মতলব দক্ষিণ থানার পুলিশ ৯৯৯ কল পেয়ে নৈতিক ও আদর্শের সাথে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিদর্শন কর্তা মাদক ব্যবসায়ী মাসুমের জব্দকৃত মোটর সাইকেল উদ্ধার করে মতলব দক্ষিণ থানা পুলিশ।অভিযুক্ত মাসুমের বিরুদ্ধে মতলব থানায় একাধিক মাদক মামলা রয়েছে।

মুন্সীগঞ্জ জেলার গজারিয়া এবং চাঁদপুর জেলার মতলব উত্তর ও দক্ষিণ এলাকায় রয়েছে মাদক ব্যবসায়ী মাসুমের মাদক ব্যবসার বিশাল সিন্ডিকেট।সে পাইকারি রেটে মাদক বিক্রির করলেও এসব এলাকায় তার রয়েছে মাদকের নিজস্ব খুচরা বিক্রেতা।নিউজে লিখিত সব বক্তব্যের সত্যতা রয়েছে মোবাইল নাম্বারে কল রেকডিং সহ বিকাশ ও নগদ নাম্বারে লেনদেন সক্রান্ত নথিতে।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত মাসুমে কাছে মুঠোফোনে সাংবাদিক সৈয়দ শাকিল দৈনিক দেশের কন্ঠ প্রতিবেদক জানতে চাইলে তাকে অকথ্য ভাষার গালি গালাজ করে।সে বলে আমি নিজেই সাংবাদিক তুই মাইর খাওয়ার জন্য রেডি হ।এছাড়াও সে সাংবাদিকে নানা ধরনের হুমকি ধামকি প্রদান করে।

 

 

ডেইলিরূপান্তর/আরএফ/কে

এ বিভাগের আরো সংবাদ