ষষ্ঠ স্থানে উঠে এলেন আন্দ্রেস্কু, শীর্ষে বার্টিই

সদ্য প্রকাশিত উইমেন টেনিস অ্যাসেসিয়েশন-ডব্লিউটিএ র‌্যাঙ্কিং অনুযায়ী, তিন ধাপ ওপরে উঠে ষষ্ঠ স্থান নিশ্চিত করেছেন কানাডিয়ান সুন্দরী বিয়াঙ্কা আন্দ্রেস্কু। অন্যদিকে ঠিকই র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থান ধরে রেখেছেন অস্ট্রেলিয়ান তারকা এ্যাশলে বার্টি।

গোঁড়ালির ইনজুরিতে পড়ায় রোববার (৪ এপ্রিল) মিয়ামি ওপেনের ফাইনালে দ্বিতীয় সেটে বার্টির বিপক্ষে ম্যাচ ছেড়ে দিতে বাধ্য হন ২০ বছর বয়সী আন্দ্রেস্কু। ২০১৯ সালের ইউএস ওপেন জয়ের পর র‌্যাঙ্কিংয়ের চতুর্থ স্থানে পৌঁছানো আন্দ্রেস্কুর এটাই ক্যারিয়ারের সেরা র‌্যাঙ্কিং।

অন্যদিকে, ফ্লোরিডায় শিরোপা ধরে রাখা বার্টি গত ৩ এপ্রিল সেমিফাইনালে পৌঁছানোর পরই র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থান ধরে রাখা নিশ্চিত করেন। সে সময় তিনি সমালোচকদের উদ্দেশ্যে বলেছিলেন, ‘র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থানটা যোগ্যতর হিসেবে আমারই প্রাপ্য।’

গত বছর করোনা মহামারীতে আন্তর্জাতিক টেনিসের বেশ কিছু টুর্নামেন্ট বন্ধ হয়ে যাওয়ায় র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থান ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছেন বার্টি। এর মধ্যে করোনার কারণে গত বছরের ইউএস ওপেন ও ফ্রেঞ্চ ওপেনে না খেলে বাড়িতে থাকার সিদ্ধান্ত নেন অজি সুন্দরী। যে কারণে শীর্ষস্থানে থাকা একজন খেলোয়াড়ের এই ধরণের সিদ্ধান্তে সরব হয়ে ওঠে সমালোচকরা।

মিয়ামিতে শিরোপা জয় করা সত্ত্বেও ১৫০ পয়েন্ট ব্যবধান কমাতে সক্ষম হয়েছেন বার্টির নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নাওমি ওসাকা। যদিও এখনও বার্টির তুলনায় এক হাজার পয়েন্ট পিছনে রয়েছেন দ্বিতীয় স্থানে থাকা জাপানীজ তারকা।

প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে এবারে সবচেয়ে বেশী উন্নতি হয়েছে ফ্লোরিডায় ওসাকাকে পরাজিত করে সেমিফাইনালে পৌঁছানো মারিয়া সাকারির। ২৫ বছর বয়সী এই গ্রীক তারকা ছয় ধাপ ওপরে উঠে ১৯তম স্থানে অবস্থান করছেন। এ পর্যন্ত এটাই তার সেরা র‌্যাঙ্কিং।

মিয়ামিতে শেষ আটে পৌঁছানো বেলারুশের আরিনা সাবালেঙ্কা এক ধাপ ওপরে উঠে সেরেনা উইলিয়ামসকে হটিয়ে সপ্তম স্থানে উঠে এসেছেন। তবে ক্যারোলিন প্লিসকোভা তিনধাপ অবনমন হয়ে নবম স্থানে নেমে গেছেন।

ডব্লিউটিএ বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং:
১. এ্যাশলে বার্টি (অস্ট্রেলিয়া), রেটিং পয়েন্ট- ৯১৮৬
২. নাওমি ওসাকা (জাপান), রেটিং পয়েন্ট- ৭৯৮৫
৩. সিমোনা হালেপ (রোমানিয়া), রেটিং পয়েন্ট- ৬৯৪৫
৪. সোফিয়া কেনিন (যুক্তরাষ্ট্র), রেটিং পয়েন্ট- ৫৯১৫
৫. এলিনা সেভিতলোনা (ইউক্রেন), রেটিং পয়েন্ট- ৫৭৫০
৬. বিনাকা আন্দেস্কু (কানাডা), রেটিং পয়েন্ট- ৫৬২৫
৭. আরিনা সাবালেঙ্কা (বেলারুস), রেটিং পয়েন্ট- ৫০৮৫
৮. সেরেনা উইলিয়ামস (যুক্তরাষ্ট্র), রেটিং পয়েন্ট- ৪৮৫০
৯. ক্যারোলিন প্লিসকোভা (চেক প্রজাতন্ত্র), রেটিং পয়েন্ট- ৪৬৬০
১০. কিকি বার্টিনস (নেদারল্যান্ড), রেটিং পয়েন্ট- ৪৯৯০

এ বিভাগের আরো সংবাদ