স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী: বাইডেন-পুতিনের শুভেচ্ছা

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ভিডিওবার্তা দিয়েছেন বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর রাষ্ট্র রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপ্রধান। ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে মঙ্গলবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন।

তিনি বলেন, ‘এটা খুবই আনন্দের বিষয় যে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ভিডিওবার্তা দিয়েছেন পৃথিবীর সবচেয়ে ক্ষমতাবান রাষ্ট্রের দুই রাষ্ট্রপ্রধান।আজই রাশান প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ভিডিওবার্তা আমাদের কাছে এসে পৌঁছেছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ভিডিওবার্তা আসছে। অন দা ওয়ে।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘গতকাল আমরা ব্রিটেনের রানি এলিজাবেথের কাছ থেকে শুভেচ্ছাবার্তা পেয়েছি। আজ রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনের মেসেজ পেয়েছি। ঢাকায় নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টে বাইডেনের মেসেজ অন দ্য ওয়ে। আমরা সেগুলো জাতির সামনে তুলে ধরব।

আবদুল মোমেন বলেন, আমরা খুব ভাগ্যবান বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনের সুযোগ পেয়েছি। যেসব অতিথি কোভিড-১৯-এর কারণে আসতে পারেন নাই তারা আমাদের শুভেচ্ছাবার্তা পাছিয়েছেন। আমরা অনেকগুলো মেসেজ পেয়েছি। আমরা জার্মানির প্রেসিডেন্টের মেসেজ পেয়েছি, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের মেসেজ পেয়েছি, ইতালির প্রেসিডেন্টের মেসেজ পেয়েছি, স্পেনের রাজার মেসেজ পেয়েছি। আমরা এগুলো আপনাদের সামনে তুলে ধরব।’

তিনি আরো বলেন বলেন, ‘আমাদের কাছে অনেক অনেক বার্তা। ২৬ তারিখের মধ্যে আমরা এগুলো প্রকাশ করব। অনেকগুলো আমরা ইতিমধ্যে প্রকাশ করেছি, ভিডিও যেগুলো আসছে আর যাদের ভিডিও আসে নাই শুধু মেসেজ এসেছে, সেগুলো আমরা প্রকাশ করব। সময় কিন্তু খুব কম, যে হারে মেসেজ আসছে জানি না শেষ পর্যন্ত কী করতে পারি।’

অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম জানান, সবগুলো বার্তা সুবর্ণজয়ন্তীর অনুষ্ঠানে প্রকাশ করা না গেলে পরবর্তীতে তা প্রকাশ করা হবে।

নেপালের রাষ্ট্রপতি বিদ্যা দেবী ভান্ডারির বাংলাদেশ সফর উপলক্ষে আয়োজিত এই সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন ও পররাষ্ট্র সচিব (পূর্ব) মাশফি বিনতে শামস উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, মুজিববর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ভিডিওবার্তা পাঠিয়েছেন চীনের প্রেসিডেন্ট সি চিন পিং, কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো, জাপানের প্রধানমন্ত্রী ইউশিহিদে সুগা, রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ, ওআইসির মহাসচিব ইউসুফ বিন আহমেদ আল ওথাইমিন, ফরাসি সিনেটর জ্যাকি দেরোমেদি ও জর্ডানের বাদশা দ্বিতীয় আব্দুল্লাহ। এসব ভিডিওবার্তা গত কয়েক দিনে জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডের অনুষ্ঠানে শোনানো হয়।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে ১৭ থেকে ২৬ মার্চ পর্যন্ত জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে ১০ দিনব্যাপী বিশেষ অনুষ্ঠানমালা চলছে।

এই অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এরই মধ্যে মালদ্বীপের রাষ্ট্রপতি ইব্রাহিম মোহাম্মেদ সোলিহ, শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসে বাংলাদেশ সফর শেষে নিজ নিজ দেশে ফিরে গেছেন। বর্তমানে নেপালের রাষ্ট্রপতি বিদ্যা দেবী ভান্ডারি ও ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ডা. লোটে শেরিং বাংলাদেশ সফর করছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ