নূর হোসেনের বিরুদ্ধে দুই পুলিশ কর্মকর্তার সাক্ষ্য গ্রহণ

নারায়ণগঞ্জের আলোচিত সাত খুন মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি নূর হোসেনের বিরুদ্ধে দায়ের করা অস্ত্র ও মাদক মামলায় পুলিশের দুই কর্মকর্তার সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়েছে। একই দিন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) মামলায় আদালতে হাজিরা দিয়েছেন নূর হোসেন।
বৃহস্পতিবার নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ সাবিনা ইয়াসমিনের আদালতে সাক্ষ্য নেয়া হয়। অপরদিকে দুদকের দায়ের করা মামলায় নারায়ণগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতে হাজিরা দিয়েছেন নূর হোসেন।
অস্ত্র ও মাদক মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে ২৭ মে। এ মামলায় অন্য আসামিরা হলেন- আলী মোহাম্মদ, জামাল, নূর হোসেনের ভাই নূর উদ্দিন ও ভাতিজা কাউন্সিলর শাহজালাল বাদল। তারাও এ দিন আদালতে উপস্থিত ছিলেন। তারা বর্তমানে জামিনে আছেন।
এ দিকে দুদকের দায়ের করা মামলায়ও পরবর্তী হাজিরার দিন ২৭ মে ধার্য করা হয়েছে।
এর আগে সকালে কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে নূর হোসেনকে গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগার থেকে নারায়ণগঞ্জ আদালতে আনা হয়। আদালতে হাজিরা শেষে দুপুর দেড়টার দিকে তাকে আবারো কাশিমপুর কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়। এ সময় আদালত এলাকায় বিপুলসংখ্যক পুলিশ মোতায়েন ছিলো।
আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট জেসমিন আহমেদ জানান, ‘অস্ত্র ও মাদকের দু’টি মামলায় আজ আদালতে নূর হোসেনসহ পাঁচ আসামিকে দ্বিতীয় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ সাবিনা ইয়াসমিনের আদালতে হাজির করা হয়। সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অস্ত্র গুলি ও মাদক মামলায় ওই সময়ের দুই পুলিশ কর্মকর্তার সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়েছে। মামলাগুলোর বিচার প্রক্রিয়া রয়েছে।
এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক মো: আসাদুজ্জামান বলেন, দুর্নীতির মামলায় সকালে নূর হোসেনকে কাশিমপুর কারাগার থেকে নারায়ণগঞ্জ আদালতে হাজির করা হয়। হাজিরা শেষে তাকে কাশিমপুর কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের ২৭ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম, আইনজীবী চন্দন সরকারসহ সাতজনকে অপহরণের পর হত্যা করা হয়। ওই হত্যায় দায়ের করা মামলায় ২০১৭ সালের ১৬ জানুয়ারি বিচারিক আদালত নূর হোসেন ও র‌্যাবের সাবেক তিন কর্মকর্তাসহ ২৬ জনকে মৃত্যুদণ্ড দেয়। এরপর থেকে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি নূর হোসেন কারাগারে বন্দী রয়েছেন।

 

 

 

ডেইলিরূপান্তর/আরএফ/ইম.

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ