করোনায় প্রাণহানি ২৮০০ ছাড়াল


দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দুই হাজার ৮০১ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর গত ২৪ ঘণ্টায় প্রাণহানি হয়েছে ৫০ জনের।

বৃহস্পতিবার দুপুরে কোভিড-১৯ রোগ নিয়ে হালনাগাদ তথ্য জানাতে স্বাস্থ্য অধিদফতরের অনলাইন ব্রিফিংয়ে এমন তথ্য জানা গেছে।

অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাসচিব অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা বলেন, গত একদিনে ১২ হাজার ৩৯৮টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। যাদের মধ্যে দুই হাজার ৮৫৬ জন মহামারীতে আক্রান্ত হয়েছেন। আর দেশে সর্বমোট আক্রান্ত হয়েছেন দুই লাখ ১৬ হাজার ১১০ জন।

তিনি বলেন, এ পর্যন্ত পুরুষ মৃত্যুবরণ করেছেন দুই হাজার ২০৯ জন। আর নারী ৫৯২ জন। শতাংশ বিবেচনায় পুরুষ ৫৮ দশমিক ৮৬ শতাংশ ও নারী ২১ দশমিক ১৪ শতাংশ।

পরীক্ষা কমে যাওয়ায় বেশ কিছুদিন ধরে দেশে করোনায় আক্রান্ত নতুন রোগীর সংখ্যা কমতির দিকে। তবে এখনো নতুন রোগী শনাক্তের বৈশ্বিক তালিকায় বাংলাদেশ শীর্ষ দশেই রয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্যানুয়ায়ী, গত এক সপ্তাহে মোট নতুন রোগী সবচেয়ে বেশি বেড়েছে এমন ১২ দেশের তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান দশম।

জুনের শুরুর দিকে থেকে বাংলাদেশে দৈনিক নতুন রোগী শনাক্তের সংখ্যা তিন হাজারের ওপরে চলে যায়। তখন থেকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ওই তালিকায় স্থান করে নেয় বাংলাদেশ।

এতে বাংলাদেশ অষ্টম থেকে একাদশ স্থানের মধ্যেই থাকছে। চলতি মাসের শুরু থেকে করোনা পরীক্ষার সংখ্যা কমতে শুরু করে। এতে নতুন রোগী শনাক্তও কমে আসে।

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল ৮ মার্চ, তা দুই লাখ পেরিয়ে যায় ১৮ জুলাই। এর মধ্যে ২ জুলাই ৪ হাজার ১৯ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়, যা এক দিনের সর্বোচ্চ।

আর ১৮ মার্চ বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে প্রথম মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদফতর। ১৭ জুলাই তা আড়াই হাজার ছাড়িয়ে যায়। এর মধ্যে ৩০ জুন এক দিনে রেকর্ড ৬৪ জনের মৃত্যুর খবর জানানো হয়।

এ বিভাগের আরো সংবাদ