‘কালো বলে ওরা আমার সঙ্গে এক টেবিলে খাবার খেত না’

দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক তারকা পেসার মাখায়া এনটিনিও বর্ণবিবৈষম্যের শিকার হয়েছিলেন। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এমনটি জানিয়েছেন সাবেক তারকা ক্রিকেটার।

এনটিনি জানিয়েছেন, ক্রিকেট জীবনে একাকীত্ব ছিল আমার সব সময়ের সঙ্গী। আমাকে দলের কেউ ডিনারের জন্য ডাকত না। এমনকী সকালে নাশতার টেবিলে গেলেও সতীর্থরা আমার পাশে বসত না। সতীর্থরা আমার সামনেই অনেক পরিকল্পনা করত। কিন্তু তাতে আমাকে রাখত না। অথচ আমরা একই জার্সি পরতাম। একই জাতীয় সঙ্গীত গাইতাম। তবু আমাকে এ সব সহ্য করতে হয়েছে।

দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ১০১ টেস্টে ৩৯০ আর ১৭৩ ওয়ানডেতে ২৬৬ উইকেট শিকার করা ৪৩ বছর বয়সী সাবেক এ তারকা পেসার আরও জানিয়েছেন, আমি টিম বাসে উঠার পর ড্রাইভারের কাছে নিজের ব্যাগ রেখে দিতাম। তারপর দৌড়ে মাঠে যেতাম। মাঠ থেকে ফেরার সময়ও একই কাজ করতাম। কেউ জানত না আমি এমনটা কেন করতাম! কাউকে কখনও বুঝতেও দেইনি। এ নিয়ে কাউকে কিছু বলিনি।

গত ২৫ মে যুক্তরাষ্ট্রের অন্যতম প্রসিদ্ধ শহর মিনোপোলিসে সিগারেট কিনতে যান সাবেক কৃষ্ণাঙ্গ বাস্কেটবল তারকা জর্জ ফ্লয়েড। জালটাকা আছে সন্দেহে তাকে গ্রেফতার করে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। পরে ৪৬ বছর বয়সী আফ্রিকান-আমেরিকান বংশোদ্ভূত এ খেলোয়াড়ের গলা হাটু দিয়ে চেপে ধরে শ্বাসরোধ করে মেরে ফেলেন পুলিশ কর্মকর্তা ডেরেক ছভিন। সোশ্যাল মিডিয়ায় জর্জ ফ্লয়েডের খবর ভাইরাল হওয়ার থেকেই প্রতিবাদে ফেটে পড়েন যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশের কৃষ্ণাঙ্গরা।

যুক্তরাষ্ট্রে পুলিশি হেফাজতে কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর পর থেকেই বর্ণবাদের বিরুদ্ধে সরব হন বিশ্বের তারকা খেলোয়াড়রা। ওয়েস্ট ইন্ডিজের তারকা ক্রিকেটার ক্রিস গেইল, ড্যারেন সামিসহ অনেকেই এই প্রতিবাদে অংশ নেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ