সাভারে রিজেন্ট এমডি মাসুদের আত্মীয় মাদকসহ আটক

ঢাকার সাভারে রিজেন্ট গ্রুপের ৪৮টি চেক বইয়ের পাতা ও মাদকসহ এমডি মাসুদ পারভেজের ভায়রা ও তার গাড়িচালককে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশ ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

এ সময় তাদের দেহ তল্লাশি করে ইয়াবা ও ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকালে আশুলিয়ার নরসিংহপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে র‌্যাব-১।

আটককৃতরা হলেন- গিয়াস উদ্দীন জালালী ও তার প্রাইভেটকারচালক মাহমুদুল হাসান।

র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক লে. কর্নেল আশিক বিল্লাহ যুগান্তরকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

র‌্যাবের হাতে আটক গিয়াস উদ্দীন জালালী (৬১) ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বাঞ্ছারামপুর থানার রুপসাদী গ্রামের মৃত ফকির সুলতান জালালীর ছেলে। তিনি রিজেন্ট গ্রুপের এমডি মাসুদ পারভেজের ভায়রা। আর প্রাইভেটকার চালক মাহমুদুল হাসান (৪০) শরিয়তপুর জেলার জাজিরা থানার ছোটকৃষ্টনগরের ফয়জুল মাতবরের ছেলে।

র‌্যাব জানায়, মাদকদ্রব্য বিক্রয় করা হচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার বিকালে আশুলিয়ার নরসিংহপুর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব।

এসময় ওই সড়কে সন্দেহভাজন একটি প্রাইভেটকারে (ঢাকা মেট্রো-গ ২৯-৫০১৫) তল্লাশি করে রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যানের স্বাক্ষর ও সিল সম্বলিত প্রিমিয়ার ব্যাংক, গরিবে নেওয়াজ এভিনিউ শাখার ৪৮টি চেক বইয়ের পাতা ও রিদম ট্রেডিংয়ের নামে ডাচ-বাংলা ব্যাংক প্রগতি সরণি শাখার একটি চেক বই উদ্ধার করা হয়।

পাশাপাশি তাদের কাছ থেকে ১০ বোতল ফেনসিডিল ও ২ হাজার ১২০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে।

লে. কর্নেল আশিক বিল্লাহ বলেন, রিজেন্ট গ্রুপের এমডি মাসুদ পারভেজের আত্মীয় গিয়াস উদ্দিনকে আটক করা হয়েছে। তার কাছে রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান সাহেদের স্বাক্ষরিত ব্যাংকের চেক বইয়ের ৪৮টি পাতা পাওয়া গেছে।

এ ঘটনায় র‌্যাব বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করেছে বলে জানান তিনি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ