তাহিরপুরে লেবু ছেঁড়ার অভিযোগ তুলে বুদ্ধি প্রতিবন্ধীকে নির্যাতন

সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে লেবু ছেঁড়ার অভিযোগ তুলে এক বুদ্ধি ও শারীরিক প্রতিবন্ধী যুবককে বেধড়ক পিঠিয়ে আহত করেছে দুই যুবক। বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) উপজেলার সদর ইউনিয়নের গোবিন্দশ্রী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

মারধরের শিকার যুবক বুদ্ধি ও শারীরিক প্রতিবন্ধী। সে স্থানীয়দের সাহায্যে জীবিকা নির্বাহ করে। বুধবার রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় গোবিন্দশ্রী গ্রামের শামছুল হকের বাড়ির লেবু গাছ থেকে একটি লেবু ছিঁড়ে হাতে নেয়।

এ ঘটনা দেখে শামছুল হকের ছেলে মুরাদ মিয়া ও সাজিদুর রহমান ওই যুবককে বেঁধে ফেলে এবং লাঠি দিয়ে পিটিয়ে হাত-পা ও পিঠে মারাত্মক জখম করে। খবর পেয়ে গ্রামের লোকজন  তাকে উদ্ধার করেন।

তাহিরপুর সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বোরহান উদ্দিন বলেন, ‘ওই যুবক একজন মানসিক প্রতিবন্ধী। সামান্য লেবু ছিঁড়ে নেওয়ার ঘটনায় এভাবে পিটিয়ে আহত করা ঠিক হয়নি।’

তাহিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, ‘প্রতিবন্ধী যুবককে মারধর করে আহত করার পর স্থানীয় একজন তাকে উদ্ধার করে প্রয়োজনীয় চিকিৎসাসেবা দিয়েছেন। এ নিয়ে জোসেফ আখঞ্জি নামে এক ব্যক্তি বাদী হয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। অপরাধীকে শীঘ্রই গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হবে।’

তবে লাঠি পেটার ঘটনা অস্বীকার করে অভিযুক্ত মুরাদ মিয়া বলেন, সে ভোরবেলা কাঁঠাল চুরি করতে এসেছিল। কোন ভুল হলে গ্রামবাসী নিয়ে সংশোধন করবে। আসলে আমরা সবাই প্রতিবেশী।

এদিকে বাদী জোসেফ আখঞ্জি বলেন, লেবু ছেঁড়ার অভিযোগ এনে প্রতিবন্ধী যুবককে বেঁধে রক্তাক্ত পিটিয়ে রক্তাক্ত করা হয়েছে। এ ঘটনায় আমার হৃদয় রক্তাক্ত হয়েছে তাই আইনের মাধ্যমে এর সুষ্ঠু বিচার চাই।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ