পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেহমুদ কোরেশী করোনায় আক্রান্ত

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কোরেশী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। শুক্রবার (৩ জুলাই) এক টুইটার বার্তায় তিনি নিজেই এ তথ্য জানিয়েছেন।

এদিকে ওই টুইটার বার্তায় মেহমুদ কোরেশী জানিয়েছেন, তিনি নিজ বাড়িতে কোয়ারেন্টিনে আছেন। সুস্থ না হওয়া পর্যন্ত বাড়ি থেকে কাজ চালিয়ে যাবেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

এ ব্যাপারে পাকিস্তানের প্রভাবশালী দৈনিক ডন জানিয়েছে, শুক্রবার (৩ জুলাই) বিকেলে সামান্য জ্বর জ্বর অনুভূত হওয়ার পর কোরেশী করোনাভাইরাস পরীক্ষা করান। পরীক্ষায় তিনি ‘পজিটিভ’ হিসেবে শনাক্ত হন।

কোভিড-১৯ পজিটিভ। আল্লাহর দয়ায় এখনও শক্ত ও উদ্দীপ্ত আছি। বাড়ি থেকেই কাজ চালিয়ে যাবো। আমার জন্য দোয়া করবেন’ – টুইটার বার্তায় এ কথা জানান ক্ষমতাসীন তেহরিক-ই ইনসাফ দলের এ নেতা।

অন্যদিকে, কোরেশীর আগেও পাকিস্তানের বেশ ক’জন রাজনীতিবিদের দেহে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়েছে। তাদের মধ্যে রয়েছেন – পার্লামেন্টের স্পিকার আসাদ কায়সার, সিন্ধু প্রদেশের গভর্নর ইমরান ইসমাইল, পিপিপি নেতা সৈয়দ গনি এবং রেলমন্ত্রী শেখ রশিদ। ইতোমধ্যেই তারা সুস্থ হয়ে উঠেছেন বলে জানিয়েছে ডন।

পাশাপাশি, জুনে পাকিস্তানের প্রভাবশালী রাজনৈতিক দল মুসলিম লীগের (নওয়াজ) প্রেসিডেন্ট শাহবাজ শরিফের শরীরেও করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত হয়।

এছাড়াও, দেশটিতে কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া রাজনীতিবিদদের মধ্যে রয়েছেন বেলুচিস্তানের সাবেক গভর্নর সৈয়দ ফজল আগা, পাঞ্জাবের প্রাদেশিক সাংসদ শাহীন রেজা, সিন্ধুর বাসস্থান বিষয়ক মন্ত্রী গুলাম মুর্তজা বালুজ, সাংসদ মুনির খান ওরাকাজি ও পিটিআইয়ের মিয়া জামশেদ উদ্দিন কাকাখেল।

এ বিভাগের আরো সংবাদ