বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে আজ থেকে করোনা চিকিৎসা

নভেল করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) আক্রান্তদের চিকিৎসায় এবার যুক্ত হচ্ছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ)।

শনিবার (৪ জুলাই) এই হাসপাতালে যাত্রা শুরু করছে ৩৭০ শয্যার ‘করোনা সেন্টার’।

শুক্রবার (৩ জুলাই) রাতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন প্রতিষ্ঠানটির উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া। ল

তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ অনুযায়ী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে ৩৭০ শয্যার করোনা সেন্টার চালু হচ্ছে।

এর আগে বিএসএমএমইউয়ে কোভিড-১৯ নমুনা পরীক্ষা ও ফিভার ক্লিনিকের মাধ্যমে সেবাদান কর্মসূচি চালু হয়। তবে করোনায় আক্রান্তদের জন্য চিকিৎসার ব্যবস্থা ছিল না দেশের একমাত্র মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালটিতে। এবার সে সুযোগও চালু হলো।

অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বলেন, এই ৩৭০ শয্যার করোনা সেন্টারের মধ্যে ‘কেবিন ব্লকে’ শয্যার সংখ্যা ২৫০টি এবং ‘বেতার ভবনে’ ১২০টি শয্যা রাখা হয়েছে। ‘কেবিন ব্লকে’ ২৫০ শয্যার মধ্যে ইমার্জেন্সি রোগীদের জন্য রয়েছে ২৪টি শয্যা, রয়েছে ১৫টি আইসিইউ। এরই মধ্যে কেবিন ব্লকে ‘সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্ল্যান্ট’ স্থাপন করা হয়েছে। এছাড়া হাই-ফ্লো ন্যাজাল ক্যানুলা, নন-ইনভ্যাসিভ ভেন্টিলেটর- সি-প্যাপ, অক্সিজেন কনসানট্রেটর স্থাপনের কাজও প্রায় শেষের দিকে।

বিএসএমএমইউ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, করোনা সেবায় প্রতিটি শয্যায় রয়েছে সেন্ট্রাল অক্সিজেন সাপোর্টসহ অন্যান্য চিকিৎসা সুবিধা। মূলত গুরুতর অসুস্থ রোগীরাই এখানে ভর্তি হবেন।

এরই মধ্যে ‘কেবিন ব্লক’ ও ‘বেতার ভবনে’ করোনা সেন্টার চালুর জন্য উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়ার সভাপতিত্বে সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক, ডাক্তার ও নার্সসহ সব পর্যায়ের স্বাস্থ্যকর্মীদের সঙ্গে অনুষ্ঠিত সভায় প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

সভায় বিএসএমএমইউয়ের উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ডা. সাহানা আখতার রহমান, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. মুহাম্মদ রফিকুল আলম, উপউপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মো. জাহিদ হোসেন এবং কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

এ বিভাগের আরো সংবাদ