সফল অধিনায়ক ধোনির নতুন সিদ্ধান্ত

ভারতকে দুটি বিশ্বকাপ ও একটি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি উপহার দেয়া সাবেক সফল অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি কোচিংয়ে ক্যারিয়ার গড়তে যাচ্ছেন।
জুলাই মাসের ২ তারিখ অনলাইন ক্রিকেট একাডেমি খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ধোনি।

গত বছর ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের পর থেকেই জাতীয় দলের বাইরে রয়েছেন ধোনি। ধারণা করা হয়েছিল আইপিএল দিয়ে আবারও ক্রিকেটে ফিরবেন তিনি। কিন্তু মহামারী করোনাভাইরাসের কারণে আইপিএল অনিশ্চিত হওয়ায় কোচিংয়ে ক্যারিয়ার গড়ার চিন্তা-ভাবনা করছেন এমএস ধোনি।

দ্য মুম্বাই মিররের একটি প্রতিবেদনে জানা যায়, আগামী ২ জুলাই একটি অনলাইন ক্রিকেট একাডেমি চালু করবেন ধোনি। দক্ষিণ আফ্রিকার গ্রেট দারিল কুলিনান, একাডেমির কোচিংয়ের পরিচালক হিসেবে যোগ দেবেন। আর ধোনি থাকবেন প্রকল্পের সার্বিক প্রধান।
২০১৭ সালে দুবাইতে একটি একাডেমি চালু করেছিলেন ধোনি। কিন্তু আন্তর্জাতিক খেলায় ব্যস্ত থাকায় সেই একাডেমিতে সেভাবে সময় দিতে পারেননি ধোনি।

এখন কোনো খেলা না থাকয় এই অবসর সময়ে ক্রিকেটারদের ক্যারিয়ার গড়তে যথাযথ প্রশিক্ষণ দেয়ার পরিকল্পনা করেছেন ভারতীয় এ কিংবদন্তি ক্রিকেটার।

২০০৪ সালের ২৩ ডিসেম্বর চট্টগ্রামে বাংলাদেশের বিপক্ষে ওয়ানডে ম্যাচের মধ্য দিয়ে আন্তর্জাতিকে অভিষেক হয় মহেন্দ্র সিং ধোনির। সবশেষ গত বছরের ৯ জুলাই ম্যানচেস্টারে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বিশ্বকাপ ম্যাচ খেলেছেন তিনি। ৩৮ বছর বয়সী এ উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান ভারতের হয়ে ৯০টি টেস্ট ৩৫০টি ওয়ানডে আর ৯৮টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে ১৬টি সেঞ্চুরির সাহায্যে সংগ্রহ করেছেন ১৭ হাজার ২৬৬ রান।

ভারতের হয়ে সর্বোচ্চ ২০০ ওয়ানডে, ৬০টি টেস্ট আর ৭২টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে নেতৃত্ব দেন ধোনি। তার অধিনায়কত্বে ভারত জিতে ১১০টি ওয়ানডে, ২৭টি টেস্ট ও ৪১টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ।

২০০৭ সালে ধোনির অধিনায়কত্বে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জিতে নেয় ভারত। ২০১১ সালে ভারতের বিশ্বকাপ জয়েও নেতৃত্ব দেন তিনি। ২০১৩ সালে ধোনির অধিনায়কত্বে বার্মিংহামে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জিতে নেয় ভারত।

এ বিভাগের আরো সংবাদ