পাবনায় করোনায় স্কুলের অফিস সহকারীর মৃত্যু

পাবনা সেন্ট্রাল বালিকা বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী লিয়াকত আলী (৫৮) করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।বুধবার সকালে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনি মারা যান।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, জ্বর-সর্দিসহ করোনার উপসর্গ নিয়ে গত ১৫ জুন লিয়াকত আলীকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সেখানে তার নমুনা পরীক্ষা করে করেনা ধরা পড়ে। এর পর তাকে কোভিড ইউনিটে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছিল। অবস্থার অবনতি হলে দুদিন আগে তাকে নেয়া হয় আইসিইউতে।

সেখানেই বুধবার সকালে তিনি মারা যান। তিনি স্ত্রী, ১ ছেলে ও ১ মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

এ নিয়ে জেলায় করোনার উপসর্গ নিয়ে ১২ জন এবং করোনায় ৬ জন মারা গেলেন। পাবনায় গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ১২২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৯৩ জনে।

পাবনার কোথাও স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব না মানায় হু হু করে বাড়ছে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা। স্থানীয় প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগের এ ক্ষেত্রে কোনো উদ্যোগ নেই বলেও অভিযোগ এলাকাবাসীর।

পাবনা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। কোভিড ও নন-কোভিড সব ক্ষেত্রেই রোগীরাই সুচিকিৎসা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন।

রোগীরা অভিযোগ করেন, পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নন কোভিডে দুপুর ১২টার পর থেকেই সিনিয়র চিকিৎসকরা হাসাপাতাল থেকে বিদায় নেন এবং তখন সব ওয়ার্ড সামাল দেন ইন্টার্নরা।

এ বিভাগের আরো সংবাদ