সংকটে মানুষের পাশে থেকে আস্থা অর্জন করেছে আ.লীগ: কাদের

গত সাত দশক ধরে সংকটে মানুষের পাশে থেকে আওয়ামী লীগ আস্থা অর্জন করেছে বলে মন্তব্য করেছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, প্রাকৃতিক দুর্যোগ কিংবা দেশের যেকোনো সংকটে মানুষের পাশে দাঁড়ানো আওয়ামী লীগের ঐতিহ্য।

মঙ্গলবার (২৩ জুন) সকালে আওয়ামী লীগের ৭১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে তার সরকারি বাসভবন থেকে ব্রিফিংকালে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

এর আগে তিনি দলীয় নেতা-কর্মীদের নিয়ে ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও দলের পক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এখন অধিকতর সংগঠিত, শক্তিশালী উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পর্যন্ত দলের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে নেতা–কর্মীরা নিবেদিত প্রাণ, সজাগ। দলের ইশতেহার বাস্তবায়নে সুশৃঙ্খল কর্মীরা প্রতিশ্রুতিশীল, ঐক্যবদ্ধ।

চলমান দুর্বার অগ্রযাত্রায় বৈশ্বিক করোনা মহামারি কিছুটা ছন্দপতন ঘটিয়েছে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, শেখ হাসিনার মানবিক ও দক্ষ নেতৃত্বে আমরা স্রষ্টার অপার রহমতে এই সংকট পাড়ি দিতে সক্ষম হবো ইনশাল্লাহ।

মুক্তিযুদ্ধের অবিনাশী চেতনা ধারণ করে মুজিবআদর্শের প্রত্যেক সৈনিক দেশ ও জাতির কল্যাণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আজ ঐক্যবদ্ধ বলে উল্লেখ করেন সরকারি দলের সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, জাতির পিতার জন্মশতবর্ষে এবং স্বাধীনতার ৫০ বছরে বিশ্বদরবারে সমৃদ্ধ জাতি হিসেবে পরিচিত হতে এবং পূর্ব পুরুষের রক্তের ঋণ শোধ করতে হবে সম্মিলিত সৃজনশীল কাজের মধ্য দিয়ে।

মাতৃভূমিকে আগামী প্রজন্মের উপযোগী করে গড়ে তোলারও অঙ্গীকার করে ওবায়দুল কাদের বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ করে সাম্প্রদায়িকতার বিষবৃক্ষের মূলোৎপাটন করে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণই হবে আমাদের অঙ্গীকার।

দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে সব নেতা-কর্মীর প্রতি শুভেচ্ছা জানিয়ে সাধারণ সম্পাদক বলেন, বঙ্গবন্ধু যে সোনার বাংলার স্বপ্ন দেখেছিলেন, সেই স্বপ্নই আজ বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিছক কোনো প্রধানমন্ত্রী নন, তার লক্ষ্য পরবর্তী নির্বাচন নয়, তার ভাবনায় শুধুই পরবর্তী প্রজন্ম। তাই তো তিনি শতবছরের ডেল্টা প্ল্যান গ্রহণ করেছেন। তিনি বলেন, শেখ হাসিনা মানে বাংলাদেশ, তিনি আছেন বলেই এ দেশের মানুষ নিশ্চিন্তে ঘুমাতে পারেন।

এ বিভাগের আরো সংবাদ