কোন মাস্ক সবচেয়ে কার্যকর?

নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে সারা বিশ্বে এখন মুখে মাস্ক পরার হিড়িক। কেউ পরছেন উচ্চ মানসম্পন্ন মেডিকেল মাস্ক, কেউবা ফার্মেসি থেকে কেনা সাধারণ মানের মাস্ক, আর কেউবা নিজেরাই তৈরি করে নিচ্ছেন ঘরে। কিন্তু আপনি কোন ধরনের মাস্ক পরছেন, তার ওপর অনেক কিছুই নির্ভর করে।

একেক ধরনের মাস্ক একেক মাত্রার সুরক্ষা দেবে। গ্রেড এন৯৫ রেসপিরেটরস সার্জিক্যাল মাস্ক কভিড-১৯ সংক্রমণের বিরুদ্ধে আপনাকে সর্বোচ্চ সুরক্ষার নিশ্চয়তা দেবে। যদিও এই মাস্ক অত্যন্ত ব্যয়বহুল, সরবরাহ সীমিত, আবর্জনা তৈরি করে ও দীর্ঘ সময় ব্যবহারে অস্বস্তির উদ্রেক করতে পারে। তাই যেসব দেশে সর্বসাধারণের সবার মাস্ক পরার প্রয়োজন অনুভূত হয় সেসব দেশে পরামর্শ দেয়া হয়, যেন এন৯৫ মাস্ক স্বাস্থ্যকর্মী ও উচ্চঝুঁকিতে থাকা মানুষদের জন্য সংরক্ষিত থাকে।

একবার ব্যবহারযোগ্য পেপার মাস্ক কিংবা পুনর্ব্যবহারযোগ্য কাপড়ের আবরণ সুরক্ষা দিতে পারে কিনা তার কোনো সুনির্দিষ্ট প্রমাণ নেই। কিন্তু এর পরও মুখের মাস্ক কভিড-১৯ সংক্রমণ ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে বলে পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। দ্য রয়েল সোসাইটির বিশ্লেষণ বলছে, এমনকি ঘরে তৈরি মাস্কও কাজ দিতে পারে।

একবার ব্যবহারযোগ্য পেপার মাস্ক না কাপড়ের মাস্ক ভালো?

সার্জিক্যাল মাস্ক ছাড়া আর কোনোটির সঠিক কার্যকারিতা নিয়েই সুনির্দিষ্ট তথ্যপ্রমাণ নেই। সবগুলোরই কিছু না কিছু সুবিধা রয়েছে, কিন্তু কোন মাস্কটি সেরা কিংবা কোনটির সুরক্ষা ব্যবস্থা ভালো, সে ব্যাপারে সঠিক কোনো প্যারামিটার নেই।

মুখের সঙ্গে শক্ত করে লেগে থাকে এমন মাস্কই সম্ভবত বেশি কার্যকর। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) বলছে, কোনো কিছু না পরার চেয়ে নিদেনপক্ষে একটি পট্টি পরিধান করাও ভালো। সিডিসির পরামর্শ, প্রতিবার ব্যবহারের পরই মাস্ক ধুয়ে ফেলতে হবে।

গার্ডিয়ান

এ বিভাগের আরো সংবাদ