কিট করোনা শনাক্তে যথেষ্ট কার্যকর: বিজন কুমার

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র উদ্ভাবিত কিট করোনা শনাক্তে যথেষ্ট কার্যকর বলে মনে করছেন উদ্ভাবক দলের প্রধান ও গণবিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. বিজন কুমার শীল।

বুধবার গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের কিট করোনাভাইরাস শনাক্তে কার্যকর নয় বলে জানিয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ)। এর প্রতিক্রিয়ায় গণমাধ্যমকে বিজন কুমার শীল বলেন, ‘আমরা অফিসিয়ালি এখনো বিএসএমএমইউর প্রতিবেদন হাতে পাইনি, আমাদের এখনো জানানো হয়নি। জানানো হলে আমরা আমাদের অবস্থান পরিষ্কার করব।’

তিনি বলেন, ‘আমরা এখনো নিশ্চিত যে আমাদের কিট করোনা শনাক্তে যথেষ্ট কার্যকর। এ বিষয়ে আমাদের অবস্থান খুবই পরিষ্কার।’

ড. বিজন কুমার শীল বলেন, ‘আমাদের উদ্ভাবিত র‍্যাপিড ডট ব্লট কিট দিয়ে পরীক্ষা করেই গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর করোনা পজিটিভ এসেছে। পরে আরটি-পিসিআর পরীক্ষাতেও একই ফল আসে। এরপর আমাদের কিটের পরীক্ষাতেই আবার তার করোনা নেগেটিভ আসে এবং আরটি-পিসিআরেও একই ফল এসেছে। এমন কয়েক শ পরীক্ষা করে আমরা সঠিক ফল পেয়েছি। আমাদের কিট যে সঠিক ফল দেয়, তা নিয়ে আমাদের কোনো সন্দেহ নেই।’

গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজের উপাধ্যক্ষ ও গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের জিআর কোভিড-১৯ র‌্যাপিড ডট ব্লট কিট প্রকল্পের সমন্বয়কারী ডা. মুহিব উল্লাহ খোন্দকার সাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের সঙ্গে বিএসএমএমইউর একটি নন-ডিসক্লোজার এগ্রিমেন্ট (এনডিএ) রয়েছে। আমরা এখনো বিএসএমএমইউ থেকে কোনো অফিসিয়াল বিস্তারিত রিপোর্ট পাইনি এবং আমাদের সঙ্গে এনডিএ অনুসারে কোনো প্রকার আলোচনা করা হয়নি। এটি পেলেই পরবর্তীতে আমরা আমাদের মতামত বিএসএমএমইউকে জানাব।

এতে বলা হয়, বিএসএমএমইউর মতামত অনুসারে কিট নিবন্ধন ও বিপণনের বিষয়ে বর্তমানে যা করার ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর সিদ্ধান্ত দেবে।

এ বিভাগের আরো সংবাদ