বৃহস্পতিবার থেকে ফের লকডাউন হচ্ছে সিলেট!

১৮ জুন বৃহস্পতিবার থেকে সিলেটের রেড জোন চিহ্নিত হওয়া এলাকা লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন।

মঙ্গলবার (১৬ জুন) সিলেটে সার্কিট হাউসের এক সভায় এসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সিলেট সিটি করপোরেশনের বেশিরভাগ ওয়ার্ড ও বিভিন্ন উপজেলার একাধিক ইউনিয়নকে রেড জোন চিহ্নিত করে এসব এলাকায় লকডাউন ঘোষণা করা হতে পারে বলে জানিয়েছেন সিলেটের সিভিল সার্জন প্রেমানন্দ মন্ডল।

আর কোন কোন এলাক রেড জোনের মধ্যে পড়বে তা বুধবার সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে জানানো হবে বলে জানিয়েছেন সিলেটের জেলা প্রশাসক কাজী এম এমদাদুল ইসলাম।

সিভিল সার্জন প্রেমানন্দ মণ্ডল বলেন, আমরা রেডজোন চিহ্নিত হওয়া এলাকাকে লকডাউন করার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তবে মানুষজনকে একদিনের সময় দিতে চাই। তাই বৃহস্পতিবার থেকে এটি কার্যকর হবে।

তিনি বলেন, নগরীর ভেতরে যেহেতু রোগী বেশি তাই নগরীর বেশিরভাগ এলাকায়ই রেডজোন হিসেবে চিহ্নিত করে লকডাউন ঘোষণা করা হবে। নগরীর উত্তর সূরমায় থাকা ১ থেকে ২৪ নম্বর ওয়ার্ড এলাকাগুলোতে করোনা রোগী সবচেয়ে বেশি। তাই এখানকার সবগুলো ওয়ার্ডই লকডাউন করা হতে পারে। আবার পুরো ওয়ার্ড লকডাউন না করে ওয়ার্ডের মধ্যে যে এলাকায় সংক্রমণ বেশি শুধু সেই এলাকাকে লকডাউন ঘোষণার ব্যাপারেও আলোচনা হচ্ছে।

উপজেলা পর্যায়ে লকডাউনের ব্যাপারে সিভিল সার্জন বলেন, উপজেলার যেসব ইউনিয়নে সংক্রমণ বেশি সেসব ইউনিয়নকে লকডাউন করা হবে। তবে অনেক ইউনিয়নে দেখা গেছে, রোগী কেবল একটি এলাকায় বেশি। ইউনিয়নের অন্যান্য জায়গায় তেমন রোগী নেই। ফলে পুরো ইউনিয়ন লকডাউন না করে নির্দিষ্ট ওই এলাকাটি লকডাউনের ব্যাপারেও আমরা চিন্তা করছি।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ স্থানীয় পর্যায়ের কর্মকর্তাদেরও মতামত নেওয়া হচ্ছে। আজকালের মধ্যে এ ব্যাপারে চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়ে যাবে।

এ ব্যাপারে সিলেটের জেলা প্রশাসক কাজী এম এমদাদুল ইসলাম বলেন, রেডজোন এলাকায় লকডাউনের ব্যাপারে আজকে আলোচনা হয়েছে। তবে কোনো কোন এলাকা রেড জোন সেটি নিয়ে এখনো চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। রাতে আবার এই ব্যাপারে বৈঠক করা হবে। কাল (বুধবার) এ বিষয়ে সিভিল সার্জন চুড়ান্ত ঘোষণা দেবেন।

প্রসঙ্গত, করোনা সংক্রমণের হার বিবেচনায় দেশের বিভিন্ন এলাকাকে রেড, ইয়েলো ও গ্রিণ জোন হিসেবে ভাগ করে সরকার। সোমবার রেড ও ইয়েলো জোনে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়। আর রেড জোনে সেনাবাহিনীর টহল বাড়ানোর কথাও সরকারি তরফ থেকে জানানো হয়েছে।

এরআগে করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে গত ১১ এপ্রিল সিলেট জেলাকে লকডাউন ঘোষণা করেছিলেন জেলা প্রশাসক কাজী এমদাদুল ইসলাম।

এ বিভাগের আরো সংবাদ