দক্ষিণ কোরিয়ার বিরুদ্ধে সামরিক পদক্ষেপের হুমকি কিমের বোনের

দক্ষিণ কোরিয়ার বিরুদ্ধে সামরিক পদক্ষেপের হুমকি দিয়েছেন উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং উনের বোন কিম ইয়ো জং।

দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের অবনতি এবং সীমান্তের ওপার থেকে পিয়ংইয়ংবিরোধী প্রচারণা বন্ধে ব্যর্থতার জন্য শনিবার সিউলের সমালোচনা করে এই হুশিয়ারি দেন তিনি।

দক্ষিণ কোরিয়া ‘শত্রু’ আখ্যায়িত করে উত্তর কোরীয় নেতার কিম ইয়ো জং আগের হুমকি পুনরাবৃত্তি করে বলেন, শিগগিরই সীমান্ত শহর কায়েসং-এ অবস্থিত আন্ত কোরীয় লিয়াজোঁ অফিসের পতন প্রত্যক্ষ করবে সিউল।

উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা কেসিএনের বরাত দিয়ে এপি এ খবর জানিয়েছে।

ডয়চে ভেলে জানিয়েছে, ক্ষমতাসীন ওয়ার্কার্স পার্টির সেন্ট্রাল কমিটির ভাইস ডিপার্টমেন্ট ডিরেক্টর কিম ইয়ো। কিমের সঙ্গে সঙ্গে বর্তমানে প্রায়ই বিভিন্ন ইস্যুতে কথা বলতে দেখা যাচ্ছে।

প্রায় সময় সীমান্ত দিয়ে উত্তর কোরিয়ার অভ্যন্তরে পিয়ংইয়ং বিরোধী লিফলেট ভর্তি বেলুন উড়িয়ে দেয় দেশত্যাগী কোরিয়ানরা। এই দেশবিরোধী কাজ বন্ধে সিউলকে ব্যবস্থা নিতে বলেছিল পিয়ংইয়ং। কিন্তু তারা ব্যর্থ হওয়ায় গত সপ্তাহ থেকে দক্ষিণ কোরিয়ার বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করছে উত্তর কোরিয়া

এরই ধারাবাকিতায় কিম ইয়ো বলেছেন, দক্ষিণের বিরুদ্ধে পাল্টা সামরিক পদক্ষেপ গ্রহণের সিদ্ধান্ত উত্তর কোরীয় সামরিক নেতাদের হাতেই ছেড়ে দেবেন।

তিনি বলেন, সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন, দল ও রাষ্ট্র কর্তৃক প্রদত্ত ক্ষমতা দ্বারা আমি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে শত্রুদের বিরুদ্ধে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়ার নির্দেশনা দিয়েছি।

কিম ইয়ো আরও বলেন, পরবর্তী পদক্ষেপ আমাদের সেনাবাহিনীর জেনারেল স্টাফের কাছ থেকে আসবে। আমাদের সেনাবাহিনীও জনগণকে শান্ত করতে কিছু একটা করতে উদগ্রীব বলে আমি মনে করি। উত্তর কোরিয়া কিম জং উনের পর সবচেয়ে প্রভাবশালী হিসেবে মনে করা হয় কিম ইয়োকে।

দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমের খবর অনুসারে, দক্ষিণ কোরিয়া সম্পর্কিত বিষয়ের দায়িত্বে এখন কিমের বোন রয়েছেন।

এ বিভাগের আরো সংবাদ